1. admin@sabujbanglanews.com : সবুজ বাংলা নিউজ : সবুজ বাংলা নিউজ
  2. uttam.birganj14@gmail.com : সবুজ বাংলা নিউজ : সবুজ বাংলা নিউজ
বীরগঞ্জের আত্রাই নদীতে অবৈধ ড্রেজিংয়ে বালু উত্তোলন, প্রশাসন নীরব - সবুজ বাংলা নিউজ
বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ০৩:৫৮ অপরাহ্ন

বীরগঞ্জের আত্রাই নদীতে অবৈধ ড্রেজিংয়ে বালু উত্তোলন, প্রশাসন নীরব

বার্ত ডেক্স
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ৬ এপ্রিল, ২০২৪

বিকাশ ঘোষ, বীরগঞ্জ (দিনাজপুর)প্রতিনিধি:

দিনাজপুরের বীরগঞ্জে প্রশাসনের নাকের ডগায় আত্রাই নদীতে চলছে অবৈধ ড্রেজার, হুমকির মুখে ঘাটপাড় জিয়া সেতু।অভিযোগ রয়েছে একটি মহল দীর্ঘদিন যাবৎ এ অঞ্চলে আত্রাই নদী থেকে ড্রেজার দিয়ে বালু উঠিয়ে বিক্রি চলছে। কিন্তু নীরব ভূমিকায় রয়েছে স্থানীয় প্রশাসন। অভিযোগ সূত্র জানা যায়,আত্রাই নদীতে অবৈধভাবে ড্রেজার মেশিন বসিয়ে লাখ লাখ ফুট বালু উত্তোলন করছে প্রভাবশালী একটি চক্র। কোনোরকম সরকারি ইজারা ছাড়াই প্রকৃতি ও পরিবেশের ক্ষতি করে প্রায় এক মাস ধরে চলছে বালু তোলার মহোৎসব।উপজেলার সড়ক পথে আত্রাই নদীর উপর বীরগঞ্জ-খানসামা যাতায়াত করতে ঘাটেরপাড় জিয়া সেতু জনগুরুত্বপূর্ণ ঝুঁকির মুখে ফেলে একটি অর্থলোভী মহল অবৈধভাবে অর্থ হাতিয়ে নিতে সেতুর অদুরে ৪/৫টি নিষিদ্ধ ড্রেজার মেশিন বসিয়ে দিনরাত নদী হতে বালু উত্তোলন করে ড্রাম্পট্রাক দিয়ে সরবরাহ করছে।ফলে পরিবেশের মারাত্মক বিপর্যয় ঘটানোসহ নষ্ট হচ্ছে সরকারী কোটি কোটি টাকা মুল্যের বিভিন্ন পাকা রাস্তা,ব্রিজ, কালভার্ট, হুমকির মুখে পড়েছে জিয়া সেতু।

প্রত্যক্ষদর্শী অনেকে অভিযোগ করে জানান, এলাকার কথিত বালু ব্যবসায়ীরা সংঘবদ্ধ হয়ে প্রশাসনের সাথে আতাত করে এই ধ্বংসাত্মক কর্ম বীরদর্পে চালিয়ে যাচ্ছে।

তারা বলেন প্রশাসনকে বারংবার জানানোর পরেও কোন প্রতিকার তো হচ্ছেই না বরং অবৈধ তৎপরতা বৃদ্ধি পাচ্ছে। প্রশাসনের সাথে সখ্যতার কারনে প্রভাবশালী দলবাজ ব্যবসায়ীরা আইনের প্রতি কোন তোয়াক্কাই করে না তাঁরা।

অপরদিকে অনুরূপ অবৈধ বালু ব্যবসায়ীদের বীরগঞ্জের প্রশাসন অভিযান চালিয়ে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে একের পর এক সাজা প্রদান করেছে।

এ ব্যপারে মোহনপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রবীন নেতা মোঃ মজিবুর রহমান দুঃখের সাথে বলেন, একই জায়গায় দুই আইন হতে পারে না, বীরগঞ্জ সীমানায় ড্রেজার মেশিন চলবে না আবার খানসামায় চলে কিভাবে?

এ ব্যপারে, উপজেলা নির্বাহী অফিসার বীরগঞ্জ মোঃ ফজলে এলাহী’র সাথে কথা হলে তিনি বলেন কোন অনিয়ম চলতে দিবেন না এবং নির্বাহী অফিসার খানসামা মোঃ তাজ উদ্দিন জানান, আমি কোন অভিযোগ পাইনি। ঘটনাটি অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক রাজস্ব দিনাজপুরসহ উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে বলেও জানান ভুক্তভোগীরা।

আরও সংবাদ
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।