1. admin@sabujbanglanews.com : সবুজ বাংলা নিউজ : সবুজ বাংলা নিউজ
  2. uttam.birganj14@gmail.com : সবুজ বাংলা নিউজ : সবুজ বাংলা নিউজ
বীরগঞ্জে গৃহবধূকে হত্যা করে আত্নহত্যা বলে চালিয়ে দেওয়ার চেষ্টা, স্বামী ও ননদত পলাতক - সবুজ বাংলা নিউজ
শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ০৮:৪৮ অপরাহ্ন

বীরগঞ্জে গৃহবধূকে হত্যা করে আত্নহত্যা বলে চালিয়ে দেওয়ার চেষ্টা, স্বামী ও ননদত পলাতক

বার্ত ডেক্স
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ১৫ অক্টোবর, ২০২৩

বিকাশ ঘোষ, বীরগঞ্জ(দিনাজপুর)প্রতিনিধি:

দিনাজপুরের বীরগঞ্জে নাজমা নামে এক গৃহবধূ কে ঠান্ডা মাথায় খুন করে আত্নহত্যা বলে চালিয়ে দেওয়ার অপচেষ্টা চলছে। লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরন করেছে পুলিশ।

শনিবার (১৪ অক্টোবর’২০২৩) সন্ধ্যা ৭টায় উপজেলার মরিচা ইউনিয়নের নাগরি-সাগরি পাইকাকার পাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত নারীর নাম নাজমা (২২)। তিনি বীরগঞ্জ উপজেলার মরিচা ইউনিয়নের নাগরি সাগরি পাইকারপাড়া গ্রামের কুখ্যাত দাদন ব্যবসায়ী সাঈদের তৃতীয় স্ত্রী ও নিজপাড়া ইউনিয়নের সাহেবপাড়া গ্রামের নুরুল ইসলামের কন্যা । সাঈদের সাথে গত মাত্র তিন মাস পূর্বে আনুষ্ঠানিকভাবে বিবাহ হয়। স্বামী-স্ত্রী পাইকারপাড়ার বাবার ভিটায় থাকতেন।

রহস্যাবৃত ঘটনায় নিহত নাজমার বাবা নুরল ইসলাম, স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, শনিবার সন্ধ্যায় সাঈদ এবং তার বোন শাহনা মুন ঘটনার সময় ঐ বাড়িতে অবস্থান করছিল।

নাজমাকে হত্যা করে তারা বাড়ি থেকে দ্রুত পালিয়ে যায় বলে এলাকাবাসী জানিয়েছে।

সংবাদ পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (বীরগঞ্জ সার্কল) খোদাদাদ সুমন সহ সঙ্গীয় পুলিশ ফোর্স রাতেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। সে সময় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আতাহারুল ইসলাম চৌধুরী হেলাল, মেম্বার রফিকুল ইসলামসহ অসংখ্য জনগন উপস্থিত ছিলেন।

সাঈদের বাবা দক্ষিণ পলাশবাড়ী উচ্চ বিদ্যালের সহকারী শিক্ষক মহসিন আলী জানান, ছেলের সাথে আমার কোন বনিবনাত নাই এবং সে আমাকে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দিয়েছে, আমি স্ত্রীসহ অন্যত্র ভাড়া বাসায় বসবাস করি।

এ ব্যপারে বীরগঞ্জ থানার পুলিশ পরিদর্শক তদন্ত ওসি মঈনুল হোসেন সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে মৃতের সুরাতহাল রিপোর্ট তৈরি করেন।

তিনি আরও জানান, বীরগঞ্জ থানায় একটি ইউডি মামাল করা হয়েছে এবং লাশ উদ্ধার করে পোস্ট মোর্টেমের জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে।

তবে মৃতের শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে বলেও তিনি জানান। মরদেহের ময়না তদন্ত শেষে পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরও সংবাদ
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।