1. admin@sabujbanglanews.com : সবুজ বাংলা নিউজ : সবুজ বাংলা নিউজ
  2. uttam.birganj14@gmail.com : সবুজ বাংলা নিউজ : সবুজ বাংলা নিউজ
আবারও বীরগঞ্জে কবরস্থান হতে ০৭টি কঙ্কাল উধাও - সবুজ বাংলা নিউজ
মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:৪৮ অপরাহ্ন

আবারও বীরগঞ্জে কবরস্থান হতে ০৭টি কঙ্কাল উধাও

বার্ত ডেক্স
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৪ আগস্ট, ২০২৩

বিকাশ ঘোষ, বীরগঞ্জ(দিনাজপুর)প্রতিনিধি:

দিনাজপুরের বীরগঞ্জে কবরস্থান থেকে ৭ কঙ্কাল চুরির চেষ্টা। আলামত সংগ্রহে ঘটনাস্থলে সিআইডির ক্রাইম সিন ইউনিট তদন্ত কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। উপজেলার ১০ নং মোহনপুর চৌধুরীহাট বালাপুকুর কেন্দ্রীয় কবরস্থান হতে ০৭টি কঙ্কাল উধাও হওয়ার অভিযোগ উঠেছে। তবে পুলিশ বলছে কবরস্থানের কয়েকটি কবরের মাটি সরে গেছে। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে। কবর হতে কঙ্কাল উধাও কিংবা চুরি হয়েছে কিনা তা তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত কিছু বলা যাবে।

এদিকে একের পর এক কবরস্থান হতে কঙ্কাল উধাও হওয়ার ঘটনায় এলাকাবাসীসহ মৃত ব্যক্তিদের স্বজনদের মধ্যে চরম আতংক বিরাজ করছে। বৃহস্পতিবার (২৪ আগস্ট) সকালে উপজেলার মোহনপুর ইউনিয়নের চৌধুরীহাট বালাপুকুর কবরস্থানের ০৭টি কবর হতে কঙ্কাল উধাও অভিযোগ উঠে। এর আগে গত ১০আগস্ট শুক্রবার একই ইউনিয়নের তুলসীপুর কেন্দ্রীয় কবরস্থান হতে ১১টি কঙ্কাল উধাও হওয়ার ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসী জানায়, স্থানীয় বাসিন্দা মোঃ মঞ্জুরুল ইসলাম সকালে কবরস্থানের পাশে বেগুন ক্ষেতে কাজ করার সময় উক্ত কবর ভেঙ্গে যাওয়ার ঘটনা জানতে পারে। এরপর তিনি কবরস্থানে গিয়ে বেশ কয়েকটি কবর ভাঙ্গা ও মাটি সরে যাওয়া দেখতে পান। পরে তিনি তাৎক্ষণিক ভাবে মোহনপুর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ শাহিনুর রহমান চৌধুরী শাহিন কে বিষয়টি অবহিত করেন।
এ ব্যাপারে মোহনপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ শাহিনুর রহমান চৌধুরী শাহিন জানান, বৃহস্পতিবার সকালে মোঃ মঞ্জুরুল ইসলাম বিষয়টি আমাকে জানালে আমি তাৎক্ষণিক ভাবে প্রশাসনকে অবহিত করি। এর আগে গত ১০আগস্ট শুক্রবার একই ইউনিয়নের তুলসীপুর কেন্দ্রীয় কবরস্থান হতে ১১টি কঙ্কাল উধাও হয় এবং এ ঘটনায় এলাকাবাসীসহ মৃত ব্যক্তিদের স্বজনদের মধ্যে আতংক বিরাজ করছে বলে তিনি আরও জানান।

সংবাদ পেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ ফজলে এলাহী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বীরগঞ্জ সার্কেল খোদাদাদ সুমন, বীরগঞ্জ থানার ওসি মোঃ আব্দুর রাজ্জাক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

জানতে চাইলে বীরগঞ্জ থানার ওসি মোঃ আব্দুর রাজ্জাক বলেন, কবরস্থানের কয়েকটি কবরের মাটি সরে গেছে। এ বিষয়ে তদন্ত চলছে। কবর হতে কঙ্কাল উধাও কিংবা চুরি হয়েছে কিনা তা তদন্ত শেষে বলা যাবে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ ফজলে এলাহী বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে পুলিশ প্রশাসন। বিষয়টি প্রসাশনের সিআইডি ঠাকুরগাঁও ক্রাইমসিন বিভাগকে তদন্তের জন্য দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। কবরস্থানে ৭দিনের জন্য বিশেষ নজরদারী বাড়ানো হয়েছে। এলাকাবাসী এবং স্বজনরা যেন আতংকিত না হয় সেজন্য স্থানীয় চেয়ারম্যানদের উদ্যোগে এলাকায় মতবিনিময় করা হবে।

আরও সংবাদ
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।