1. admin@sabujbanglanews.com : সবুজ বাংলা নিউজ : সবুজ বাংলা নিউজ
  2. uttam.birganj14@gmail.com : সবুজ বাংলা নিউজ : সবুজ বাংলা নিউজ
বীরগঞ্জে প্রচণ্ড দাবদাহে ডাবের দাম আকাশচুম্বী - সবুজ বাংলা নিউজ
মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:২৯ অপরাহ্ন

বীরগঞ্জে প্রচণ্ড দাবদাহে ডাবের দাম আকাশচুম্বী

বার্ত ডেক্স
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ২৩ জুলাই, ২০২৩

বিকাশ ঘোষ, বীরগঞ্জ(দিনাজপুর)প্রতিনিধি:

দিনাজপুরের বীরগঞ্জ প্রচণ্ড তাপপ্রবাহে মানুষ নাজেহাল, অন্যদিকে দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে ডাবের দাম। এক ২ মাসের ব্যবধানে ব ডাবের দাম আকাশচুম্বী। দুই মাস আগেও প্রতি পিস ডাবের দাম ছিল ৬০-৭০ টাকা। বর্তমানে সেই ডাব বিক্রি হচ্ছে ১২০-১৩০ টাকা দরে। দুই মাসে ডাবের দাম বেড়েছে দ্বিগুণ। ব্যবসায়ীরা বলছেন, গরমে চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় ডাবের সরবরাহ কমেছে। তাই দামও বেড়েছে। পৌরশহরের থানার সমনে বিজয় চত্বরে থেকে তাজমহল মোড় পর্যন্ত রাস্তার দুই ধারে ডাব বিক্রি বেশি হয়। শহরের আশপাশে বেসরকারি হাসপাতাল, ক্লিনিক এবং একটু দুরেই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। তাই এখানে ডাবের চাহিদাও বেশি। রবিবার (২৩ জুলাই-২০২৩) দুপুরে ওই মোড়ে গিয়ে দেখা যায়, আকারভেদে প্রতি পিস ডাব বিক্রি হচ্ছে ১২০-১৩০ টাকা দরে। অথচ দুই মাস আগেও এসব ডাব বিক্রি হয়েছে ৭০ টাকায়। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রোগী দেখতে এসেছেন উপজেলার পলাশবাড়ী ইউনিয়নের একরামুল ইসলাম। ডাব কিনতে এসে তিনি পড়েছেন বিপাকে। একরামুল বলেন, আমি তাড়াতাড়ি করে চারটি ডাব কাটতে বলেছি। এখন দেখি চারটি ডাবের দাম দিতে হবে ৫২০ টাকা। অথচ দুই মাস আগেও এখান থেকে ৬০ টাকা দরে ডাব কিনেছি। বতর্মান দরে একেকটির দাম পড়ছে ১৩০ টাকা। তিনি বলেন, অতীতে জেলায় কখনো এত দামে ডাব কিনে খাইনি। ডাবের দাম যে এতো বেশি হবে জানতামই না। এখন তো দেখছি ডাবই কেনা যাবে না।

বীরগঞ্জ পৌরশহরের বিজয় চত্বরে পার্শ্বে ডাব বিক্রেতা হান্নান শাহ বলেন, কয়েদিদের গরমের কারণে ডাবের চাহিদা বেড়েছে। তবে সে অনুপাতে আমরা ডাব পাচ্ছি না। আগে দিনে অন্তত ১০০ পিস ডাব বিক্রি করতাম। এখন পাইকারি বাজার থেকে দিনে মাত্র ২০-৩০ পিস কিনতে পারি। মানুষ যখন একটু উঞ্চতা পেতে ডাব কিনতে আসে কিন্তু সংকটের কারণে গ্রাহকদের ফিরিয়ে দেওয়া ছাড়া উপায় থাকে না। বীরগঞ্জ পৌরশহরের বিভিন্ন দোকানে পাইকারি দামে ডাব হোম ডেলিভারি দিতে দিনাজপুর জেলা শহরের পুলহাট এলাকার শেখ ফরিদ জানান,প্রচণ্ড গরমে ডাবের চাহিদা অনুযায়ী পাওয়া যাচ্ছে না। অন্যদিকে অতিরিক্ত পরিবহন খরচের কারণে ডাব সংকট দেখা দিয়েছে। এক মাস আগে সর্বোচ্চ ৭০-৮০ টাকা ডাবের বাজার মূল ছিল। বর্তমানে ৯০ থেকে ১০০ পাইকারি দামে বিক্রি হচ্ছে। তিনি আরও জানান,লোকাল ডাব বাজারে না আসা পর্যন্ত ডাবের দাম আকাশচুম্বী থাকবে। এব্যাপারে বীরগঞ্জ উপজেলা স্যানিটারি ইন্সপেক্টর ও নিরাপদ খাদ্য পরিদর্শক ফরিদ বিন ইসলাম বলেন,ডাবের দাম বৃদ্ধি বিষয়ে বাজার মনিটরিং অভিযান পরিচালনা মাধ্যমে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও সংবাদ
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।