1. admin@sabujbanglanews.com : সবুজ বাংলা নিউজ : সবুজ বাংলা নিউজ
  2. uttam.birganj14@gmail.com : সবুজ বাংলা নিউজ : সবুজ বাংলা নিউজ
বিরামপুরে মসজিদ উদ্বোধন করলেন, পৌর মেয়র অধ্যক্ষ আককাস আলী - সবুজ বাংলা নিউজ
সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ০৪:১০ পূর্বাহ্ন

বিরামপুরে মসজিদ উদ্বোধন করলেন, পৌর মেয়র অধ্যক্ষ আককাস আলী

বার্ত ডেক্স
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ১৭ জুন, ২০২৩

বিরামপুর (দিনাজপুর)প্রতিনিধি,রায়হান কবির চপল.

(১৬ জুন) শুক্রবার বৈকাল ৫ ঘটিকায় নির্মাণকৃত উন্নত মানের মসজিদটি শুভ উদ্বোধন করেন. বিরামপুর পৌরসভার স্বনামধন্য সুযোগ্য মেয়র অধ্যক্ষ আককাস আলী,,

বিরামপুর পৌরসভার জনসাধারণ ও পথচারীদের প্রার্থনায় উন্নত মানের মসজিদ উদ্যোগ গ্রহণ করেন, বিরামপুর পৌরসভার সুনামধন্য ও সুযোগ্য মেয়র অধ্যক্ষ আককাস আলী,
দিনাজপুর জেলার অন্তর্গত বিরামপুর পৌরসভাধীন ৭ নাম্বার ওয়ার্ড ভুক্ত জনবহুল মির্জাপুর এলাকায় পৌর মেয়রের নিজস্ব জায়গার মধ্যে মসজিদটি নির্মিত হয়।

প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ জ্বালানি ও ক্ষনিজসম্পদ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব হুমায়ুন কবীর,
এ সময় আরো উপস্থিত বিরামপুর পৌরসভার প্যানেল মেয়র আব্দুল আজাদ মন্ডল, বিরামপুর মহিলা কলেজের (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যক্ষ মেসবাউল হক, মুকুন্দপুর ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ, ৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রভাষক মোজাম্মেল হক, ৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ইসমাইল হোসেন আরো অনেকে।

উক্ত জনবহুল এলাকায় তেমন কোন স্বনামধন্য উন্নত মানের মসজিদ না থাকায় জনসাধারণের প্রার্থনার ব্যাঘাত ঘটত।
তারা আরো জানান,উক্ত মসজিদটি নির্মাণ হওয়ায় এলাকার আল্লাহ ভক্তরা ও চলাচলরত জনসাধারণ প্রার্থনায় আল্লাহর দিদারে সহজেই সময় দিতে পারবেন বলে বিরামপুর পৌরসভার মেয়র কে অনেক অনেক ধন্যবাদ ও অভিনন্দন জানান।
পক্ষান্তরে উক্ত এলাকাটি একটি জনবহুল, এলাকা পার্শ্ব দিয়ে রয়েছে ঢাকা মহাসড়ক জনসাধারণের দূর দূরান্তে যাতায়াতের একমাত্র রাস্তা। পথিমধ্যে নামাজের সময় হলে প্রার্থনার স্থান পাওয়া নিয়ে সকলেরই কিছুটা সমস্যায় পড়তেই হয়। উক্ত মসজিদটি নির্মাণে সকল পথচারী আল্লাহ ভক্তরা অতি সহজেই আল্লাহর দিদারে মসজিদে নিমজ্জিত হতে পারবেন। সেখানে তারা নিয়মিত পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আদায় করতে পারবেন। এ বিষয়ে এলাকার আল্লাহ ভক্ত মুসল্লীগণের কাছে জানতে চাইলে তারা জানান,অনেকদিন হলো এই এলাকায় তেমন সৌন্দর্য বড় ধরনের কোন মসজিদ হয় নাই বা ছিল না। মসজিদটি নির্মাণ হওয়ার ফলে এলাকাবাসীর সহ প্রান্তে যাতায়াতের পথচারীগণ যথা সময়ে আল্লাহর প্রার্থনা যোগ দিতে পারবেন বলে মনে করেন।

আরও সংবাদ
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।