1. admin@sabujbanglanews.com : সবুজ বাংলা নিউজ : সবুজ বাংলা নিউজ
  2. uttam.birganj14@gmail.com : সবুজ বাংলা নিউজ : সবুজ বাংলা নিউজ
বীরগঞ্জে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে মারপিট অভিযোগে থানায় মামলা, স্বামী আটক - সবুজ বাংলা নিউজ
রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০১:০০ পূর্বাহ্ন

বীরগঞ্জে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে মারপিট অভিযোগে থানায় মামলা, স্বামী আটক

বার্ত ডেক্স
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ৩১ মে, ২০২৩

বিকাশ ঘোষ,বীরগঞ্জ(দিনাজপুর)প্রতিনিধি।।

দিনাজপুরের বীরগঞ্জে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে মারপিট করে গুরুতর আহতের অভিযোগে মামলা দায়ের করা হয়েছে। বুধবার ভুক্তভোগী নারী বীরগঞ্জ থানায় এজাহার দাখিল করেন। এঘটনায় স্বামী নলনি বর্মন কে আটক করেছে বীরগঞ্জ থানা পুলিশ। মামলার বিবরণে জানা যায়, উপজেলার শিবরামপুর ইউনিয়নের কেশেরীপাড়া গ্রামের মলিন চন্দ্র বর্মনের মেয়ে শ্রীমতী বৃষ্টি রাণী (২২) এর প্রায় ৪ বছর পূর্বে পার্শ্ববর্তী দেউলী রথবাজার গ্রামের বাবুল চন্দ্র বর্মনের ছেলে নলনি চন্দ্র বর্মন (২৫) এর সাথে বিবাহ সম্পন্ন হয়। বিবাহের সময় হিন্দু শাস্ত্র মতে উপটৌকন হিসেবে ৩ ভরি স্বর্ন, দুটি গরু,অন্যান্য আসবাবপত্রসহ নগদ ২ লাখ ৮ হাজার টাকা প্রদান করেন। তাদের সংসারে অজিৎ চন্দ্র বর্মন নামে ২ বছর বয়সী পুত্র সন্তান রয়েছে। পরিবারের লোকজনের কু-পরামর্শে বিয়ের পর থেকেই তার স্ত্রীর কাছে ২ লাখ ৬০ হাজার টাকা যৌতুক দাবি করে না পেয়ে স্বামী নলনি বর্মন শ্বাশুরী শরতি রাণী,শ্বশুর বাবুল চন্দ্র বর্মন, কাকা শ্বশুর ডালু চন্দ্র বর্মন সকলে মিলে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন শুরু করে। কিন্তু যৌতুকের দাবিতে বিভিন্ন ভাবে নির্যাতন করলেও বৃষ্টি রাণীর পরিবার গরীব হওয়ায় টাকা দিতে পারেনি। এব্যাপারে একাধিকবার বিচার শালিশ করা হয়। এ অবস্থায় যৌতুকের টাকা না পেয়ে গত ২৮ মে রাত্রি আনুমানিক ১টার দিকে উল্লেখিত সকলের প্রত্যক্ষ সহায়তায় নলনি বর্মন এলোপাতাড়ি কিল-ঘুষি মারতে থাকে এবং একপর্যায়ে লোহার রড দিয়ে কপালে আঘাত লাগলে বৃষ্টি রাণী রক্তাক্ত ও জখম হয়। শ্বাশুড়ি শারতি তার মাথার চুল টেনে ধরে এবং শ্বশুর বাবুল বর্মন তার হাতে থাকা লাঠি দিয়ে শরীরের বিভিন্ন স্থানে কালশিরা জখম করে। বৃষ্টির অতৎচিকারে আশপাশের লোকজনসহ খগেন্দ্র চন্দ্র বর্মনের ছেলে আশ্বিনাথ বর্মন, ডাউয়া চন্দ্র বর্মনের ছেলে সুভাষ চন্দ্র বর্মন এগিয়ে এসে আসামিদের কবল হতে প্রাণে রক্ষা করে নিজ নিজ বাড়ীতে চলে গেলে উপরোক্ত সকল আসামিগণ বৃষ্টিকে জখম অবস্থায় শ্বশুর বাড়ির শয়ন ঘরে বিনা চিকিৎসায় আটক করে রাখে। পরবর্তীতে বৃষ্টি রাণী আসামির বাড়ী হতে কৌশলে বের হয়ে অসুস্থ অবস্থায় ৩০ মে একটি অপরিচিত অটোযোগে দ্রুত বীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য ভর্তি হয়। বৃষ্টি রাণী কোন কুল কিনারা না পেয়ে ২০০০( সংশোধিত -২০২০) সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন,যৌতুক আইনে বীরগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। যাহার মামলা নং -২৬,তারিখ ৩১/৫/২০২৩ইং। এব্যাপারে বীরগঞ্জ থানার ওসি তদন্ত মঈনুল ইসলাম সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ মামলার প্রধান আসামি নলনি বর্মন (২৫) কে গ্রেফতার করে দিনাজপুর জেলা আদালতে সোর্পদ করা হয়েছে।

আরও সংবাদ
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।