1. sbnews2016@gmail.com : সবুজ বাংলা নিউজ : সবুজ বাংলা নিউজ
  2. support@wordpress.org : Support :
  3. uttam.birganj14@gmail.com : বার্তা বিভাগ : বার্তা বিভাগ
  4. info@wordpress.org : __ : __
বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৫:১৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
দিনাজপুর এপি ওয়ার্ল্ড ভিশন-বাংলাদেশের আয়োজনে হতদরিদ্র পরিবারের সফলতার গল্প, বার্ষিক প্রতিফলন ও মূল্যায়ন বিষয়ক কর্মশালা বীরগঞ্জের ৮নং ভোগনগর ইউনিয়ন সামাজিক সম্প্রীতি কমিটির সভা বীরগঞ্জে পল্লীতে ভেষজ চিকিৎসার নামে চলছে প্রতারণা, চলছে জ্বিনের বাদশার ভেলকিবাজী বীরগঞ্জে পল্লীতে ভেষজ চিকিৎসার নামে চলছে প্রতারণা, চলছে জ্বিনের বাদশার ভেলকিবাজী আন্তর্জাতিক নদী দিবসে বীরগঞ্জে মানববন্ধন ও আলোচনা সভা দুর্গা পুজা উদযাপন উপলক্ষে মতবিনিময় সভায় পুলিশ সুপার সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় পুজা আনুষ্ঠানে বাধা সৃষ্টিকারী যেই হোক না ছাড় দেয়া হবে না আমরা ধার্মিক হতে চাই, কিন্তু ধর্মান্ধ যেন না হই -মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি বীরগঞ্জে মিনা দিবস পালিত নীলফামারীর ডোমারে যুবকের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার বীরগঞ্জে নতুন আঙ্গিকে চলছে চিলকুড়া গোরস্থান উন্নয়নের কাজ বীরগঞ্জ প্রবীণ আ.লীগ নেতা আবুল কালাম এর নামাজের জনাজা অনুষ্ঠিত সকল ধর্মের রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা বিধানে আওয়ামী লীগ প্রতিজ্ঞাবদ্ধ -মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি ‌ডিমলা উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নুর মোহাম্মদ নামে অপপ্রচার সোনালী এজেন্ট ব্যাংকিং গোলাপগঞ্জ বাজার, আউটলেট এর শুভ উদ্বোধন অযোগ্য নেতৃত্বই বিএনপিকে অযোগ্য রাজনৈতিক দলে পরিণত করেছে -মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি

যা কেবল স্মৃতিতে গাঁথা। মনে পড়ে আজো ভীষণ, তার নাম (টিভি) টেলিভিশন

বার্তা ডেক্স
  • প্রকাশের সময়: মঙ্গলবার, ২৩ জুন, ২০২০
  • ৯১ জন দেখেছেন

উত্তম শর্মা ,নিজস্ব প্রতিবেদক, সবুজ বাংলা নিউজ  ll

মাত্র ২০-২৫ বছর আগে কথা।
যা কেবল স্মৃতিতে গাঁথা।
মনে পড়ে আজো ভীষণ,
তার নাম (টিভি) টেলিভিশন।

গ্রিক শব্দ ‘টেলি’ অর্থ দূরত্ব, আর ল্যাটিন শব্দ ‘ভিশন’ অর্থ দেখা। ১৮৬২ সালে তারের মাধ্যমে প্রথম স্থির ছবি পাঠানো সম্ভব হয়। এরপর ১৮৭৩ সালে বিজ্ঞানী মে ও স্মিথ ইলেকট্রনিক সিগনালের মাধ্যমে ছবি পাঠানোর পদ্ধতি আবিষ্কার করেন। ব্রিটিশবিজ্ঞানী জন লগি বেয়ার্ড ১৯২৬ সালে প্রথম টেলিভিশন আবিষ্কার করেন

পাড়া কিংবা মহল্লায় তো নাই-ই। উপজেলায় হাতে-গোনা কয়েকটি টেলিভিশন ছিল। তাও আবার সাদা-কালো। চালানো হতো ব্যাটারি দিয়ে। নির্দিষ্ট সময় পরপর সেই ব্যাটারি বহন করে নিয়ে যেতে হতো উপজেলা শহরে চার্জ করাতে। দু-আড়াই বছর পরপর সেই ব্যাটারি বাদ দিয়ে নতুন ব্যাটারি বানাতে হতো। টেলিভিশন চালানো বেশ ব্যয়বহুল ছিল। তখন গ্রামে তথ্য-বিনোদনের জন্য টেলিভিশনের (টিভি) চেয়ে ভালো মাধ্যম আর ছিল না।

টেলিভিশনে তখন বিটিভি একমাত্র চ্যানেল। এই চ্যানেলটি আবার নির্দিষ্ট সময়ের জন্য চালু থাকত। গ্রামে তাও সব সময় ভালো দেখা যেত না। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে এন্টেনা ঘুরিয়ে-ফিরিয়ে দেখার চেষ্টা করা হতো। কখনো কখনো ছবি এতটা অস্পষ্ট হয়ে যেত, দেখাই যেত না। তারপরও টেলিভিশন ছিল খুব কাঙ্ক্ষিত। বিশেষ করে টেলিভিশনে প্রচারিত বাংলা সিনেমা।

তখন এক মাসে একটি বাংলা সিনেমা প্রচার হতো। সেটি ছিল মাসের প্রথম বৃহস্পতিবার রাতের বাংলা সংবাদের পর। সেই সিনেমা শেষ হতে হতে গভীর রাত হয়ে যেত। বিটিভির এই অনুষ্ঠানটি কত জনপ্রিয় ছিল বুঝা যেত, মাসের এই দিনটি এলে। আশপাশের কয়েক গ্রাম থেকে দর্শক এসে জড়ো হতেন টেলিভিশনের সামনে। খোলা আকাশের নিচে গভীর রাত জেগে উপভোগ করতেন। পারিবারিক কাহিনী নির্ভর সেই সব সিনেমার নায়িকার বেদনায় তারা ব্যথিত হতেন। পারিবারিক জীবনের দুঃখ-বেদনা সহ্য করে নায়ক-নায়িকারা সুদিনের জন্য ধৈর্য ধরে থাকতেন, তা থেকে শিক্ষা নিতেন। সিনেমার শেষ পর্যায়ে ভিলেনকে ক্ষমা করে দেওয়ার শিক্ষাও দর্শকরা পেতেন। আর ক্ষমা করার শিক্ষা বাধ্যতামূলক নিতে হতো টিভি ওয়ালা গৃহস্থের। টিভি দেখতে আসা মানুষের কত উৎপাত যে সহ্য করতে হতো।

পরে গ্রামে টেলিভিশনের সংখ্যা বাড়তে থাকে। পাড়ায় পাড়ায় টেলিভিশন চলে আসে। আসে প্রত্যেকের ঘরে ঘরে।এমনকি প্রত্যেকের হাতে হাতে (মুঠোফোনে)। সেই সময় গ্রামে সিনেমা দেখার অন্যতম উপায় হিসেবে আবির্ভুত হয় ভিসিআর, যা উপজেলা শহর বা গঞ্জ থেকে ভাড়ায় এনে দেখা হতো। এই ভিসিআর নিয়ে নব্বই-এর দশকের শুরুর দিকে গ্রামে-গঞ্জে উন্মাদনার সৃষ্টি হয়, যা বেশ কয়েক বছর ধরে চলতে থাকে।

তবে এখন প্রকৃতি ও পরিবেশ বদলে গেছে। এখন আর কেউ মিলিত হয় না টিভিতে নাটক কিংবা ভিসিআরে সিনেমা দেখার জন্যে, দেখা হয় না প্রিয় ব্যক্তির কোন অভিনয়। কারণ তারা প্রত্যেকেই নাটকের এক একজন অভিনেতা। একেবারে পাকা অভিনেতা।।

সেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের আরও সংবাদ:
© All rights reserved © 2019 Sabuj Bangla News
Theme Designed BY Kh Raad ( Frilix Group )