বীরগঞ্জে ঘাঁস চাষ করে শামীমা বেগম স্বাবলম্বী বীরগঞ্জে ঘাঁস চাষ করে শামীমা বেগম স্বাবলম্বী – সবুজ বাংলা নিউজ
  1. [email protected] : সবুজ বাংলা নিউজ : সবুজ বাংলা নিউজ
  2. [email protected] : বার্তা বিভাগ : বার্তা বিভাগ
বুধবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:৩২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বীরগঞ্জের পল্লীতে আদালতের নির্দেশ অমান্য করে জমি দখলের অভিযোগ কুড়িগ্রামে নানা আয়োজনে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন পালিত দিনাজপুর শিক্ষাবোর্ডে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র ৭৫ তম শুভ জন্মদিন পালিত সাতোর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকার মাঝি হতে চান বাবু মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে বীরগঞ্জে চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা বীরগঞ্জের মরিচায় প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে গণটিকার কার্যক্রম উদ্বোধন বীরগঞ্জে আন্তর্জাতিক তথ্য অধিকার দিবস পালিত মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপলক্ষে বীরগঞ্জে ছাত্রলীগের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচী পালন নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে বিরামপুর পৌরসভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫ তম জন্মদিন পালিত কাহারোলে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত মানুষের জীবনমান উন্নত করাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার লক্ষ্য -হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি বিশ্ব নদী দিবস উপলক্ষে বীরগঞ্জে মানববন্ধন ও আলোচনা সভা শেখ হাসিনার উদ্দোগ,ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ, এই ¯স্লোগান কে সামনে রেখে- দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে বিদ্যুৎ স্বাস্চয়ের লক্ষ্যে,সৌর বিদ্যুৎ চালিত সেচ পাম্প ব্যবহার ও সংযোগ গ্রাহনে জনসাধারনকে অবহিত করন সভা হয়েছে বিরামপুরে পৌর এলাকায় কার্পেটিং রাস্তার কাজের উদ্বোধন করলেন-পৌর মেয়র আককাস আলী দিনাজপুরের দৈনিক যুগের আলোর ২৯ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

বীরগঞ্জে ঘাঁস চাষ করে শামীমা বেগম স্বাবলম্বী

বার্তা ডেক্স
  • প্রকাশের সময়: রবিবার, ৮ আগস্ট, ২০২১
  • ১১০ জন দেখেছেন

বিকাশ ঘোষ, বীরগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধ ॥

শামীমা বেগম (৩৮) চার বছর আগের জীবনের সঙ্গে এখন কোনো মিল নেই। ওই সময় তাঁর বসতভিটা ছাড়া কোনো জমি ছিল না। অন্যের জমিতে কামলা খেটে কোনোরকমে সংসার চালাতেন তার স্বামী। একবেলা খাবার জুটলেও আরেক বেলা জুটত না। স্বামী-সন্তানদের নিয়ে প্রায় উপোস থাকতে হতো। আর আজ তিনি সফল ঘাসচাষি। সুন্দর বাড়ি, বিশ শতক জমির মালিক।

উপজেলার বীরগঞ্জ পল্টাপুর ইউনিয়নের কুসুমতৈড় গ্রামের শামীমা বেগমের ভাগ্যের চাকা বদলে গেছে ঘাঁস চাষে। এখন এলাকার অনেক ঘাঁসচাষির পথপ্রদর্শক তিনি।

উপজেলার পৌর শহরে থেকে পাঁচ কিলোমিটার দূরে পাল্টাপুর ইউনিয়নের কুসুমতৈড় গ্রাম। এই গ্রামে শামীমা বেগমের বাড়ি। গ্রামটিতে ঢুকেই চোখে পড়ে সবুজের সমারোহ। মাঠের পর মাঠ ঘাঁসের খেত। কেউ ঘাস কাঁটছেন, কেউ আঁটি বেঁধে অটো ভ্যান করে বাজারে বিক্রির জন্য নিয়ে যাচ্ছেন। সরজমিনে শামীমার বাড়িতে গিয়ে দেখা যায়, তিনি বাড়ির পাশে লাগানো জমির ঘাঁস কাঁটছেন। সাংবাদিক পরিচয় শুনে আইলে উঠে আসেন তিনি । এরপর ঘাঁস চাষের গল্প শোনান।

শামীমা আমাদের প্রতিতিধিকে জানান, ঠাকুরগাঁও জেলার পীরগঞ্জ উপজেলার দৌলতপুর গ্রামের মেয়ে শামীমা বেগম। ২০০৫ সালে পাল্টাপুর ইউনিয়নের কুসুমতৈড় গ্রামের আব্দুল মান্নানের ছেলে মঞ্জু আলী (৪৫) শামীমাকে বিয়ে করেন। স্বামী সন্তান নিয়ে শাীমমার ছোট্ট পরিাবার। দিনমজুরি করে সংসার চালাতেন তার স্বামী। কাজ পেলে খাবার জুটত, না পেলে অনাহারে থাকতে হতো। তাঁদের এই কষ্ট দেখে বীরগঞ্জ এপি ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ সার্বিক সহযোগীতা করে উপজেলা প্রাণী সম্পদ অধিদপ্তর থেকে ঘাঁষ চাষের জন্য পরামর্শ ও সাহায্য প্রদান করেন।

কুসুমতৈড় গ্রামটি দেখতে দেখতে ঘাঁসের খেত সবুজে ভরে ওঠে। ৫০ দিনের মাথায় ঘাঁস বিক্রি করে খরচ বাদে পাঁচ হাজার টাকা আয় আসে। স্বামীও ঘাঁস চাষে তাঁর সঙ্গে কাজে হাত লাগায় ।

এভাবে একপর্যায়ে শামীমা বেগম হয়ে ওঠেন সফল ঘাঁসচাষি। শুধু যে ঘাঁস চাষ করেন তা না বীরগঞ্জ এপি ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ থেকে গাভী পেয়েছেন তিনি । সেই গাভী থেকেও দুধ পায় সেই দুধ বাজার জাত করে এবং পরিবারের পুষ্টির চাহিদা পূরণ করে। ঘাঁস চাষ করে শামীমা শুধু নিজের ভাগ্যই বদল করেননি। গ্রামের অনেককেই তাঁর পরামর্শ দিয়ে স্বাবলম্বী করে তুলেছেন।

এ বিভাগের আরও সংবাদ:
© All rights reserved © 2019 Sabuj Bangla News
Web Designed By : Sabuj Bangla News Team