করোনার সংক্রমণ বৃদ্ধি পেলেও বীরগঞ্জে জনসচেতনতা বাড়ছে না করোনার সংক্রমণ বৃদ্ধি পেলেও বীরগঞ্জে জনসচেতনতা বাড়ছে না – সবুজ বাংলা নিউজ
  1. [email protected] : সবুজ বাংলা নিউজ : সবুজ বাংলা নিউজ
  2. [email protected] : বার্তা বিভাগ : বার্তা বিভাগ
শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:৫৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বীরগঞ্জে মন্দিরের শৌচাগার নিমার্ণ কাজের উদ্বোধন মুখে মাস্ক না থাকায় রিকসা চালকের মাথা ফাটালো ফুলবাড়ী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পরিচ্ছন্নতাকর্মী উলিপুরের বিশিষ্ট সমাজ সংস্কারক দার্শনিক এর ৮তম প্রয়াণ দিবস পালিত বিরামপুর মহিলা কলেজ পরিদর্শন ও মাস্ক বিতরণ করলেন ইউএনও বীরগঞ্জে বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ ও শিশু সুরক্ষা বিষয়ে ধর্মীয় নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় সভা কাহারোলে শিক্ষার গুনগত মান উন্নয়ন বিষয়ক সভা অনুষ্ঠিত আওয়ামীলীগের নৌকা প্রত‍্যাশি সুজাউল হক সবুজ মুখে মাস্ক না থাকায় রিকসা চালকের মাথা ফাটালো ফুলবাড়ী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পরিচ্ছন্নতাকর্মী বীরগঞ্জ সরকারি কলেজে বৃক্ষ রোপণের মাধ্যমে বীরগঞ্জ শুভসংঘের নতুন কমিটির যাত্রা শুরু রানীশংকৈলে ভাঙা কালভার্টে ঝুঁকি নিয়ে চলাচল রাণীশংকৈলে কৃষকের মাঝে বিনামূল্যে বীজ ও সার বিতরণ শিশু অধিকার, শিশু নিরাপত্তা, উন্নয়নের জন্য যোগাযোগ (সিফোরডি) ও শিশু নেতৃত্বের কর্মশালা তাকেদা হেলদি ভিলেজ প্রজেক্ট এর প্রকল্প কার্যক্রম সমাপনী ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন অনুষ্ঠান বাল্যবিবাহ রোধে কিশোর কিশোরীদের আন্দোলন গড়ে তোলার বিকল্প নেই এমপি মনোরঞ্জন শীল গোপাল ডোমারের জোড়াবাড়ী ইউপি নির্বাচনে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী যুবলীগ নেতা আজাহারুল ইসলাম জুয়েল

করোনার সংক্রমণ বৃদ্ধি পেলেও বীরগঞ্জে জনসচেতনতা বাড়ছে না

বার্তা ডেক্স
  • প্রকাশের সময়: বৃহস্পতিবার, ১ এপ্রিল, ২০২১
  • ১১০ জন দেখেছেন

 

বিকাশ ঘোষ,বীরগঞ্জ(দিনাজপুর)প্রতিনিধি:

সারাদেশসহ দিনাজপুরে করোনাভাইরাসের ভয়াবহ আকার ধারণ করলেও বীরগঞ্জ উপজেলার জনসাধারণ মানুষের মাঝে সচেতনতা বাড়ছে না। মাস্ক পরার উপর উপজেলা প্রশাসনের অভিযান পরিচালনা ও বীরগঞ্জ থানা পুলিশের পক্ষ থেকে মাস্ক পরিধান বাধ্যতামূলক বিষয়ক ব্যাপক প্রচার-প্রচারণা করা হলেও সচেতনতা বৃদ্ধিতে তেমন প্রভাব পরছে না। অবস্থা দেখে মনে হচ্ছে করোনা সম্পর্কে সাধারণ মানুষের ভীতি আর নেই। বিশেষ করে জনসমাগম বেশি হয়,এমন অফিস আদালতে মানুষের উপচে পড়া ভীড় লক্ষ্য করা যাচ্ছে। সেখানে সামাজিক দূরত্ব তো দূরের কথা কারো মুখেই মাস্ক দেখা যায় না। গত বছর মার্চ মাসে দেশে ব্যাপক হারে করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হওয়ার পর সাধারণ মানুষের মাঝে করোনা সম্পর্কে আতংক ছড়িয়ে পড়ে। সরকারের প্রচার-প্রচারণা এবং জনসচেতনতা বাড়তে থাকায় সাধারণ মানুষ ঘরমুখো হয়ে পড়ে। বিনা প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাইরে যায়নি। কিন্তু ঠিক এক বছর পর এই চিত্র সম্পূর্ণ ভিন্ন। ঠিক এক বছর আগে সাধারণ মানুষের চলাফেরা রোধ করতে উপজেলা প্রশাসন ছিলো কঠোর। বর্তমানে তা অনেক শিথিল হয়ে গেছে। সে সময় সন্ধ্যার পরপরই মার্কেট বন্ধ করা হলেও এখন রাত ১০ টা থেকে ১২ টা পর্যন্ত মার্কেট চলছে। পৌরশহরের বিজয় চত্বর এলাকায় রাত ১২ পর্যন্ত চলছে দোকানপাট। করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় সাধারণ মানুষ যাতে যথাযথভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলে সে ব্যাপারে সরকার কঠোর নির্দেশনা প্রদান করেছে। কিন্তু বীরগঞ্জের সাধারণ মানুষের মধ্যে করোনা নিয়ে উদাসিতাই ফুটে উঠেছে। মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক হলেও উপজেলায় প্রায় ৭০ ভাগ মানুষ তা মানছেন না। নো মাস্ক নো সার্ভিস এবং নো সেল কার্যক্রম বাস্তবায়ন হচ্ছে না। পৌরসভা ও উপজেলার বিভিন্ন হাট-বাজার ও বিভিন্ন ইউনিয়নের গ্রামে ঘুরে দেখা যায়,অনেক কর্মকর্তা -কর্মচারীসহ সর্ব সাধারণ মাস্ক ছাড়াই চলাফেরা এবং দায়িত্ব পালন করছে। রাস্তাঘাট, হাট-বাজার,বিপণী বিতানগুলোতে নেই মাস্ক ব্যবহারে বাধ্যবাধকতা বা নেই কোথাও কোনো জনসচেতনতামূলক লিফলেট। বেশিরভাগ মানুষই মাস্ক ব্যবহার না করে চলাচল করছেন। দোকানপাটে ক্রেতাদের ভিড়ও প্রচণ্ড। এছাড়া ক্রেতা-বিক্রেতাদের বেশির ভাগই মাস্ক ছাড়া বেচাকেনা করছেন। হোটেল -রেস্টুরেন্টগুলোতে স্বাস্থ্যবিধি পুরোপুরি যেন উপেক্ষিত, হোটেল মালিকদের ও মাস্ক পরিধান করতে দেখা যাচ্ছে না এমনকি তাদের ভোক্তাদের মাস্ক ব্যবহারে কোনো উপদেশও দিতে দেখা যাচ্ছে না।

এ বিভাগের আরও সংবাদ:
© All rights reserved © 2019 Sabuj Bangla News
Web Designed By : Sabuj Bangla News Team