নীলফামারীতে কমতেছে তাপমাত্রা বাড়ছে শীতের প্রকোপ নীলফামারীতে কমতেছে তাপমাত্রা বাড়ছে শীতের প্রকোপ – সবুজ বাংলা নিউজ
  1. [email protected] : সবুজ বাংলা নিউজ : সবুজ বাংলা নিউজ
  2. [email protected] : বার্তা বিভাগ : বার্তা বিভাগ
শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:৫৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বীরগঞ্জে ৪ হাত পা বিশিষ্ট শিশু দিনাজপুরে বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রহিম স্মৃতি ফুটবল টুর্ণামেন্ট এর চুড়ান্ত খেলা ও পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠিত সিসি ক্যামেরার আওতায় নতুন রূপে সজ্জিত হলো বীরগঞ্জ পৌরসভা ঘোড়াঘাটে জেলা প্রশাসকের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত বীরগঞ্জে সিংড়া শালবনে দর্শনার্থীদের আনাগোনায় মুখরিত গতিহীন বিএনপি’র জন্য হুইল চেয়ারের ব্যবস্থা করতে হবে -মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি বীরগঞ্জে কমিউনিটি ও বিট পুলিশিং সভা অনুষ্ঠিত কুড়িগ্রামে চার শতাধিক চরে বসেছে কাশফুলের মেলা রাণীশংকৈলে মাল্টা চাষে স্বাবলম্বী হচ্ছেন কৃষকরা কুড়িগ্রাম সীমান্তে ‘বাংলাদেশী ভেবে’ ভারতীয়কে গুলি করে হত্যা বীরগঞ্জে ভোক্তা অধিদপ্তরের বাজার তদারকিতে ৬ হাজার টাকা জরিমানা আদায় সাম্প্রদায়িকতার সমাধিতে অসাম্প্রদায়িক চেতনার কেতন উড়বেই -মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি রাণীশংকৈলে আ.লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত প্রবাসীদের সহায়তায় ভাসমান সাঁকো নির্মাণ বীরগঞ্জে দুর্গা প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত কারিগররা

নীলফামারীতে কমতেছে তাপমাত্রা বাড়ছে শীতের প্রকোপ

বার্তা ডেক্স
  • প্রকাশের সময়: শনিবার, ২৮ নভেম্বর, ২০২০
  • ১৫৩ জন দেখেছেন

নীলফামারীতে কমতেছে তাপমাত্রা বাড়ছে শীতের প্রকোপ

 

 

মোঃ রাব্বি ইসলাম আব্দুল্লাহ
সংবাদদাতা নীলফামারী

নীলফামারীতে তাপমাত্রা কমতে শুরু করেছে। এতে বেড়ে চলেছে শীতের দাপট। কুয়াশায় ছেয়ে যাচ্ছে গ্রামের রাস্তাঘাট। দীর্ঘ গরম শেষে এ শীত একটু স্বস্তি এনে দিয়েছে।
কিন্তু নদী এলাকায় রাতে কনকনে ঠান্ডা অনুভূত হয়, কুয়াশা থাকে সকাল ১১টা পর্যন্ত।

এদিকে শীতের আগমনের সঙ্গে সঙ্গে কষ্টে দিন কাটছে চরাঞ্চলের মানুষের। শীতবস্ত্রের অভাবে অনেকেই আগুন জ্বালিয়ে শীত নিবারণের চেষ্টা করছেন। তিস্তা নদীর বিভিন্ন চর এলাকায় সরেজমিন দেখা যায়, আগুনের কুন্ডলি জ্বালিয়ে শীত নিবারণ করার চেষ্টা করছে অসহায় পরিবারগুলো।

শীতের গরম কাপড়ের অভাবে বিপাকে পড়েছেন দরিদ্র জনগোষ্ঠী। বেশি বিপাকে রয়েছে সহায়-সম্বলহীন হতদরিদ্র পরিবারগুলো। তারা পুরোনো গরম কাপড়ের দোকানগুলোতে ভিড় করছেন।

তিস্তা এলাকায় রাত ৮ টার পরে কনকনে শীত পড়ে। শীতের কারণে সকাল ৯টার আগে কৃষি জমিতে কাজে যাওয়া কষ্টকর হয়ে পড়েছে। এ কারণে স্বাভাবিক কাজে ব্যাঘাত ঘটছে। গ্রামের কৃষি শ্রমিকদের শীতের কারণে কাজ কমে গেছে। আর যেটুকু মিলছে তাতে মজুরি কম। তাই শীতবস্ত্র কেনার টাকাও নেই, পরিবারের স্ত্রী- সন্তানসহ দুর্ভোগ পোহাচ্ছে ।

শীতের কারণে আগের তুলনায় লোক সমাগম কমেছে জেলা শহরে। ফলে মন্দাভাব দেখা দিয়েছে ব্যবসা-বাণিজ্যে। নীলফামারীর জেলা সদরের শাখামাছাবাজার ও পৌর সুপার মার্কেটের ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান গুলোয়, লোক সমাগম বেশি না হওয়ার কারণে দোকানে বিক্রি কমেছে।

নীলফামারী দোকান মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আতিয়ার রহমান বলেন, এমনিতেই করোনায় ব্যবসায়ীদের ক্ষতি হয়েছে, তার ওপর শীত ভালোভাবে না আসতেই জনসমাগম কমে গেছে।

নীলফামারী জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ জয়নাল আবেদীন বলেন, আমাদের তহবিলে পাঠানো সরকারি কম্বল রয়েছে। আমারা কিছুদিনের মাধ্যেই বিতরন শুরু করব। তিনি হতদরিদ্রদের শীত নিবারণে সরকারের পাশাপাশি বিভিন্ন এনজিও ও বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

এর এই মধ্যে সেইফ ফাউন্ডেশন শীত বস্ত্র ও কম্বল বিতরন করা শুরু করেছে।
সেইফ ফাউন্ডেশনের প্রধান সমন্ময়ক জনাব রাসেল আমিন স্বপন বলেন, আমাদের মজুদ রাখা শীতের কাপর ও কম্বল গুলো বিতরন শুরু করেছি।
আমাদের বিভিন্ন দাতা গন শীতবস্ত্র পাঠানো মাত্রই বিতরন করে যাচ্ছি। আমাদের পরিকল্পনা নীলফামারী জেলায় বিতরন শেষ করে রংপুর বিভাগের বাকি ৭ টি জেলাতেও বিতরন শীঘ্রই শুরু করব।

অন্যদিকে এমএসডিএফ বাংলাদেশ নীলফামারী সংগঠন শীতে বিতরণের জন্য শীতের কাপর ও কম্বল সংগ্রহ শুরু করে দিয়েছে। এমএসডিএফ বাংলাদেশ এর চেয়ারম্যান জনাব মোঃ মারুফ খান বলেন, আমরা ইতিমধ্যে বৃত্তবানদের বাসায় বাসায় গিয়ে ব্যাবহার উপযোগী পুরোনো কাপর সংগ্রহ করেছি এগুলো পোড়া বাড়ী ও আসহায় মানুষের মাঝে বিতরন করব। ইতি মধ্যে কয়েকদিনে ২ টা পোড়া বাড়ীতে ত্রান সামগ্রী পৌছে দিয়েছি। ডিসেম্বর এর মধ্য কাপর ও কম্বল বিতরন শুরু করবো।
আপনাদের সহযোগিতা কামনা করছি।

এ বিভাগের আরও সংবাদ:
© All rights reserved © 2019 Sabuj Bangla News
Web Designed By : Sabuj Bangla News Team