সৈয়দপুরে শতবর্ষী স্কুল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় সৈয়দপুরে শতবর্ষী স্কুল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় – সবুজ বাংলা নিউজ
  1. [email protected] : সবুজ বাংলা নিউজ : সবুজ বাংলা নিউজ
  2. [email protected] : বার্তা বিভাগ : বার্তা বিভাগ
বুধবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:১৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বীরগঞ্জের পল্লীতে আদালতের নির্দেশ অমান্য করে জমি দখলের অভিযোগ কুড়িগ্রামে নানা আয়োজনে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন পালিত দিনাজপুর শিক্ষাবোর্ডে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র ৭৫ তম শুভ জন্মদিন পালিত সাতোর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকার মাঝি হতে চান বাবু মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে বীরগঞ্জে চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা বীরগঞ্জের মরিচায় প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে গণটিকার কার্যক্রম উদ্বোধন বীরগঞ্জে আন্তর্জাতিক তথ্য অধিকার দিবস পালিত মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপলক্ষে বীরগঞ্জে ছাত্রলীগের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচী পালন নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে বিরামপুর পৌরসভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫ তম জন্মদিন পালিত কাহারোলে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত মানুষের জীবনমান উন্নত করাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার লক্ষ্য -হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি বিশ্ব নদী দিবস উপলক্ষে বীরগঞ্জে মানববন্ধন ও আলোচনা সভা শেখ হাসিনার উদ্দোগ,ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ, এই ¯স্লোগান কে সামনে রেখে- দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে বিদ্যুৎ স্বাস্চয়ের লক্ষ্যে,সৌর বিদ্যুৎ চালিত সেচ পাম্প ব্যবহার ও সংযোগ গ্রাহনে জনসাধারনকে অবহিত করন সভা হয়েছে বিরামপুরে পৌর এলাকায় কার্পেটিং রাস্তার কাজের উদ্বোধন করলেন-পৌর মেয়র আককাস আলী দিনাজপুরের দৈনিক যুগের আলোর ২৯ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

সৈয়দপুরে শতবর্ষী স্কুল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়

বার্তা ডেক্স
  • প্রকাশের সময়: রবিবার, ১৫ নভেম্বর, ২০২০
  • ৪০০ জন দেখেছেন

সৈয়দপুরে শতবর্ষী স্কুল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়
মোঃ রাব্বি ইসলাম আব্দুল্লাহ
সংবাদদাতা নীলফামারী
ইংরেজ শাসনামলে সৈয়দপুরে রেলওয়ে কারখানা প্রতিষ্ঠিত হওয়ায় ভারতের বিভিন্ন এলাকা থেকে চাকরির সুবাদে বিভিন্ন ভাষাভাষী মানুষের আগমন ঘটে এই শহরে। এক ইংরেজ সাহেবকে প্রধান করে ১৮৮৬ সালে সর্বপ্রথম এম ই স্কুল নামে বর্তমানে রেলওয়ে একাউন্টস অফিসের স্থানে প্রতিষ্ঠিত হয় সৈয়দপুর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়।
স্কুলের ছাত্র সংখ্যা বাড়ার কারণে সৈয়দপুর ও আশ-পাশের  ব্যক্তিদের মধ্যে মরহুম হেদায়েতুল্লাহ সরকার, রহিম উদ্দিন সরকার, পরমতুল্লাহ সরকার, কোফাতুল্লাহ সরকার, হাজী জামাল উদ্দিন আহমেদ, কাজীতুল্যা চৌধুরী এবং মরহুম জিয়ারতুল্লাহ আহমদ। জমি ও অর্থ দান করে স্কুল প্রতিষ্ঠায় যথেষ্ট ভূমিকা রেখেছেন। দেশ বিভাগের কারণে হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন চলে যাওয়ায় তাদের নাম পাওয়া যায়নি।
স্থানীয় লোকজন ও কমিটির তরফ থেকে সে সময় সংগৃহিত অর্থের পরিমাণ ছিল মাত্র ১ হাজার টাকা। তৎকালীন সরকারের শিক্ষা বিভাগ ১৪ হাজার টাকা ও রেলওয়ে বিভাগ ১০ হাজার টাকা এককালীন দান করে। রেলওয়ে এলাকা বাদ দিয়ে শহরের নিয়ামতপুর মৌজায় ৫ একর ৩৪ শতক পছন্দসই জায়গা স্কুলের জন্য নির্বাচন করা হয় এবং একটি ইসেপেড স্কুল বিল্ডিং নির্মাণ করা হয়। দক্ষিণমুখী স্কুল ভবনটি আজও অপূর্ব নির্মাণশৈলীর ধারক ও বাহক হিসাবে দাঁড়িয়ে আছে।
এভাবেই ১৮৮৬ সালের এম ই স্কুলটি ১৯০৬ সালে সৈয়দপুর হাই ইংলিশ স্কুল হিসাবে প্রতিষ্ঠা লাভ করে। ১৯০৬ সালে স্কুল ভবনটি নতুনভাবে নির্মাণের পর যদুনাথ ঘোষ এমএকে প্রধান শিক্ষক হিসাবে দায়িত্ব দেওয়া হয়। ১৯৭১ সালে দেশ স্বাধীনের পর স্কুলের নাম হয় সৈয়দপুর উচ্চ বিদ্যালয় যা পরবর্তীতে সৈয়দপুর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় নামকরণ করা হয়।
বয়েজ স্কুল হিসাবে চললেও ১৯৯২ সালে ছাত্রের পাশাপাশি ছাত্রী ভর্তি কার্যক্রম শুরু হয়।
এ বিভাগের আরও সংবাদ:
© All rights reserved © 2019 Sabuj Bangla News
Web Designed By : Sabuj Bangla News Team