কুখ‌্যাত চোর পিচ্ছি গ্রেফতার – সবুজ বাংলা নিউজ
শনিবার ২৩ জানুয়ারি ২০২১, পৌষ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ

কুখ‌্যাত চোর পিচ্ছি গ্রেফতার

মোঃ রাব্বি ইসলাম আব্দুল্লাহ,নীলফামারী জেলা প্রতিনিধী।

নীলফামারী সদর থানা পুলিশ কুখ‌্যাত চোর শরিফুল ইসলাম(পিচ্চি), বাড়ী কুখাপাড়া স্টাফ কোয়াটার, ও পিচ্চির সহযোগী অপর কুখ‌্যাত চোর মোঃ সহিদ (২২), বাড়ী কুখাপাড়া স্টাফ কোয়াটার, গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত শরিফুল ইসলাম ওরফে পিচ্চি দির্ঘদিন হতে নীলফামারী জেলাসহ নিকটবর্তী বিভিন্ন জেলায় প্রাইভেটকার, মটরসাইকেল চুরিসহ দোকান, বাড়ি চুরির সাথে প্রত‌্যক্ষ ভাবে জড়িত। শরিফুল ইসলাম ওরফে পিচ্চি এক জেলায় চুরি করে অন‌্য জেলায় আত্ম গোপন করে থাকতো ।
জনাব মোহাম্মদ মোকলেছুর রহমান বিপিএম, পিপিএম পুলিশ সুপার নীলফামারীর প্রত‌্যক্ষ দিক নির্দেশে অফিসার ইনচার্জ নীলফামারী সদর থানা জনাব কে এম আজমিরুজ্জামান বলেন- কুখ‌্যাত চোর শরিফুল ইসলাম ওরফে পিচ্চি এবং তার সহযোগীদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় নিয়ে আসার নিমিত্তে একটি চৌকশ টিম গঠন করে দিয়েছি।

উক্ত টিমের টিম লিডার হিসেবে কাজ করেন পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) নীলফামারী থানা জনাব মাহমুদ উন নবী।
পুলিশ পরিদর্শক মামুদ উন নবী বলেন-
আত্মগোপনে থাকা পিচ্চিকে গ্রেফতারে হাল ছাড়িনি পরিচলিত হয় একের পর এক সাড়াশি অভিযান। দির্ঘ সময় একটানা অভিযান পরিচালনা করার পর ৩০/০৮/২০২০ তারিখ রাত ১২ টার দিকে কু‌খ‌্যাত চোর শরিফুল ইসলাম ওরফে পিচ্চি এবং তার সহযোগী মোঃ সহিদকে নীলফামারী সদর থানাধীন টেক্সটাইল মোড় হতে বাবড়ীঝাড় গামী রাস্তার পাশ হতে গ্রেফতার করা হয়।
গ্রেফতারের সময় আসামীদের কাছ থেকে বিভিন্ন এলাকায় চুরি যাওয়া ০৩(তিন) টি ল‌্যাপটপ, ০১(একটি) এল ই ডি টেলিভিশন, ০১(এক)টি একটি সেচ পাম্প, ০১(এক)টি ফ‌্যান এবং বিভিন্ন চোরাই মালামাল উদ্ধার করা হয়।
গ্রেফতার কৃত আসামীদের কাছ থেকে উদ্ধারকৃত মালামাল সমুহ বিভিন্ন বসতবাড়ি এবং দোকান হতে পলাতক অন‌্যান‌্য আসামীসহ চুরি করেছে এবং বিক্রয়ের উদ্দেশ‌্যে টেক্সটাইলে অবস্থান করছিল এ তথ্য জানা যায় তথ‌্য । একই উদ্দেশ‌্যে চুরি ও চোরাই মালামাল সমুহ উদ্ধার সংক্রান্তে আসামীদের এবং পলাতক অন‌্যান‌্য আসামীদের বিরুদ্ধে নীলফামারী থানার এস আই, মো: এরশাদ হোসেন বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। গ্রেফতার কৃত পিচ্চি এবং সহিদকে ৩১/০৮/২০২০ তারিখ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম‌্যাজিষ্ট্রেট আদালত -০১, নীলফামারীতে সোপর্দ করা হয়। আসামীরা মামলার ঘটনা সংক্রান্তে আদালতে সেচ্চায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়। আসামী শরিফুল ইসলাম ( পিচ্চির) বিরুদ্ধে নীলফামারী সদর থানার ০৪(চার)টি গ্রেফতারী পরোয়ানার পলাতক আসামী ছিল। বর্নিত আসামীদে কুখ‌্যাত চোর শরিফুল ইসলাম পিচ্চির বিরুদ্ধে ০৮(আট) টি চুরি মামলা আদালতে বিচারাধীন রয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা যায়। নীলফামারী সদর থানা পুলিশ পিচ্চি ও তার সহযোগী সহিদকে গ্রেফতার করায় জনগনের মাঝে স্বস্তি বিরাজ করছে।

আরও সংবাদ

ভুমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে জমি ও ঘর প্রদানের উদ্বোধন উপলক্ষে সভা ও প্রেস ব্রিফিং

  রুহুল আমিন রুকু, কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধিঃ মুজিববর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক ভুমিহীন ও …