বাংলাদেশের চিকিৎসক যখন করোনা ভাইরাস যোদ্ধা, অজস্র কান্নার আর্তনাদ    বাংলাদেশের চিকিৎসক যখন করোনা ভাইরাস যোদ্ধা, অজস্র কান্নার আর্তনাদ    – সবুজ বাংলা নিউজ
  1. [email protected] : সবুজ বাংলা নিউজ : সবুজ বাংলা নিউজ
  2. [email protected] : বার্তা বিভাগ : বার্তা বিভাগ
বুধবার, ০৪ অগাস্ট ২০২১, ০৯:৪৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কাহারোলে বাংলাদেশ প্রেস ক্লাব কাহারোল উপজেলা শাখার আহবায়ক কমিটি গঠন বীরগঞ্জ উপজেলা করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির সভা নিখোঁজের ৩ বছর পর ভারতীয় এক যুবককে উদ্ধার করলো সিআইডি নিখোঁজের ৩ বছর পর ভারতীয় এক যুবককে উদ্ধার করলো সিআইডি বাংলাদেশ প্রেস ক্লাব কাহারোল উপজেলা শাখার আহবায়ক কমিটি গঠন গৌরীপুরে ‘গরীবের ডাক্তার’ সুনীল আচার্য্যের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নতুন আর ও একটি এম্বুলেন্সের উদ্বোধন কুড়িগ্রাম চিলমারীতে গ্রাম পুলিশদের মাঝে সাইকেলও পোশাক বিতরণ বীরগঞ্জে ছাত্র-ছাত্রীকে আটক করে এক লক্ষ টাকা চাঁদা দাবী, ইউপি সদস্য সহ আটক-৫ বীরগঞ্জে করোনায় আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসককের মৃত্যু দিনাজপুরের বীরগঞ্জে ভেঙ্গে পড়া ব্রীজ পরিদর্শনে এমপি মনোরঞ্জন শীল গোপাল ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে কলেজ ছাত্রের মৃত্যু শোকাবহ আগষ্টের প্রথম প্রহরে জেলা ছাত্রলীগের মোমবাতি প্রজ্জ্বলন অবৈধ ভাবে ভারত থেকে ফেরার পথে কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী সীমান্তে ৭ বাংলাদশী আটক বীরগঞ্জে সামান্য বৃষ্টিতে ব্রীজ ভেঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ ,দুর্ভোগে এলাকার ৫০ হাজার মানুষ

বাংলাদেশের চিকিৎসক যখন করোনা ভাইরাস যোদ্ধা, অজস্র কান্নার আর্তনাদ   

বার্তা ডেক্স
  • প্রকাশের সময়: শুক্রবার, ১৫ মে, ২০২০
  • ৪০ জন দেখেছেন

 

মোঃ নাজমুল হোসেন, স্টাফ রিপোর্টার  : বাংলাদেশে চিকিৎসক অন্যের সেবা নিয়ে আতংকিত। 

তারপরে করোনা ভাইরাস এর নমুনা সংগ্রহ করতে গিয়ে নিজেই আক্রান্ত হলেন। গত ৯ মে শনিবার সকালে সেই চিকিৎসক নিজেও নমুনা দেন, তারপরের দিন রোববার রাতে জানতে পারি।চিকিৎসক বললেন, যায় যাক প্রাণ, তবুও করি নাই পলায়ন।

হয়েছি ক্ষত, তাতে কি; যুদ্ধতো থামেনি।বরং ক্ষত কমবে যত, যুদ্ধের গতি বাড়াবো তত।একজন করোনা আক্রান্ত ডাক্টারের এর কথা।

উনারা আমার সরাসরি শিক্ষক…তাদের দেয়া শিক্ষাকেই আমি মনে প্রাণে ধারণ করি। আমি গর্বিত এই জন্যে যে,আমি চিকিৎসক, আমি গর্বিত কারন আমি করোনার সম্মুখযোদ্ধা।

যায় যাক প্রাণ, তবুও করি নাই পলায়ন।হয়েছি ক্ষত, তাতে কি ; যুদ্ধতো থামেনি।বরং ক্ষত কমবে যত, যুদ্ধের গতি বাড়াবো তত।

আর হ্যাঁ, আমি ডাক্তার যে নিজের খারাপ সময়টাতেও আপনাদেরকে নিয়ে ভাবি, অথচ আপনারা যারা আমাদের পরিবারগুলোকে অমানবিকতার বেড়াজালে ঘিরে রেখেছেন।

কেন ভাই, আপনারা কি কোন গায়েরী খবর পেয়েছেন যে আপনাদের করোনা হবে না। তাহলে ঠিক আছে। কিন্তু যদি আপনার করোনা হয়, তাহলে তো ঐ চিকিৎসকেই কাছে আসতে হবে আপনাকে হবে, তখন কি করবেন?

আমি নিজে আপনাদের জন্যে কাজ করতে করতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে অসুস্থ, তারপরও আপনাদের সমাজেরই অন্য কোন করোনা রোগীর চিকিৎসা আমি অবিরাম দিয়ে যাচ্ছি , সেটা কি আমার অপরাধ!

তারপরও আমি ডাক্তার, গর্বিত ডাক্তার ।

অমানবিক আপনারা  বিপদে পড়লে একটু  স্বরণ করিয়েন, আমি ছুটে যাব নির্দ্বিধায়, সব ভুলে। তারপরেও যদি আপনাদের মনের কালো দৈত খুশি না হয়, তবে বলে দেন….., আমরা ডাক্তাররা হ্যামিলনের বাশিওয়ালার মত চলে যাব এশহর ছেড়ে।

অজস্র কান্নায় চিকিৎসক যা বলল, আমি আমার দায়িত্ব পালন করি। তবে যদি দায়িত্ব পালন করে বাড়িওয়ালা বলে বাড়ি ছেড়ে দেন। তখন কেমন লাগে। তবুও জীবন বাজি রেখে সেবা করবো।   

চিকিৎসক তার নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক করোনা আক্রান্ত কোন এক করোনাযোদ্ধা। যোদ্ধা স্যালুট তোমায় হাজার স্যালুট।

এ বিভাগের আরও সংবাদ:
© All rights reserved © 2019 Sabuj Bangla News
Web Designed By : Prodip Roy