তালার জালালপুরে ঘর ভাঙ্গার অভিযোগ,আবার ও আলোচনায় জালালপুরমোড়ল পাড়া তালার জালালপুরে ঘর ভাঙ্গার অভিযোগ,আবার ও আলোচনায় জালালপুরমোড়ল পাড়া – সবুজ বাংলা নিউজ
  1. [email protected] : সবুজ বাংলা নিউজ : সবুজ বাংলা নিউজ
  2. [email protected] : বার্তা বিভাগ : বার্তা বিভাগ
বৃহস্পতিবার, ১৭ জুন ২০২১, ০২:৪৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
কুড়িগ্রামে শিশুশ্রম সবচেয়ে বেশি কাহারোল উপজেলার রসুলপুর ইউনিয়ন পরিষদের আয়োজনে মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি’র রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত দিনাজপুর বীরগঞ্জে ৯ নং সাতোর ইউনিয়নের দলুয়া উচ্চ বিদ্যালয় ও মহাবিদ্যালয় আয়োজনে মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপির রোগমুক্তি কামনায় দোয়া অনুষ্ঠিত বীরগঞ্জে আর্দশ কৃষকদের মাঝে প্রশিক্ষণের শুভ উদ্বোধন সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত এক নারীর কাহারোলে মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি’র রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত বীরগঞ্জ উপজেলা রিক্সা ও ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের আয়োজনে মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি’র রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত কুড়িগ্রামে ‘জাম্ক ফুড, পথ ও খোলা খাবার না খেলে অনেক রোগ থেকে মুক্তি মিলে’ বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত কুড়িগ্রামে ৩টি ওয়ার্ডে চলাচলে বিধি নিষেধ আরোপ বীরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের আয়োজনে এমপি গোপাল এর রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত

তালার জালালপুরে ঘর ভাঙ্গার অভিযোগ,আবার ও আলোচনায় জালালপুরমোড়ল পাড়া

বার্তা ডেক্স
  • প্রকাশের সময়: বুধবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
  • ২২ জন দেখেছেন

 

তালা,সাতক্ষীরা প্রতিনিধিঃ

তালা উপজেলার জালালপুর ইউনিয়নের জালালপুর মোড়ল পাড়ার অসহায় বিধবা আকলিমার (৫০) ঘর ভেঙে দিয়েছে প্রতিপক্ষ আজগর, লতিফ, খলিল ও আনছের। এসময় ৬নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য পলাশ ও ওয়ার্ড আ.লীগ নেতা হান্নান মোড়ল দাড়িয়ে থেকে তার বসতঘর, গোয়াল ঘর ভাঙার হুকুম দেন বলে সাংবাদিকদের নিকট অভিযোগ করেছেন আকলিমা।
এসময় আকলিমা উপস্থিত সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বলেন, এ পৃথিবিতে আমার নেই স্বামী, নেই কোন সন্তান। তাই আমার দুর্বলতার সুযোগে প্রতিবেশী সামশের আলী মোড়লের তিন ছেলে আজগর মোড়ল (৪০), লতিফ মোড়ল (৪৩), খলিল মোড়ল (৫০), এবং আনছের মোড়লের ছেলে শুকুর আলী মোড়ল (৪৮) দীর্ঘদিন ধরে একত্রিত হয়ে আমাকে স্বামীর ভিটা থেকে বে-আইনি ভাবে উচ্ছেদ করার চেষ্টা করে আসছে। এর আগেও আমাকে আমার স্বামীর ভিটা থেকে উচ্ছেদ করার জন্য কুপিয়ে জখম করে। সে ঘটনায় আমি বাদী হয়ে তালা থানায় মামলা করি। সে মামলায় তারা কিছুদিন জেলও খেটেছে। এবার তারা অভিনব কায়দায় ঘর ভেঙে উঠান তৈরী করে বেড়া দিয়েছে। যেনো কেউ বুঝতে না পারে এখানে আমার কোন ঘর ছিলো। আপনাদের কাছে আমি একটাই অনুরোধ করছি আমি যেনো স্বামীর ভিটায় থাকতে পারি তার ব্যবস্থা আপনারা করেন। আমি ইউএনও স্যারের কাছেও একটা অভিযোগ দিয়েছি।
এব্যাপারে অভিযুক্ত ইউপি সদস্য পলাশের সাথে মুঠো ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ভাই আকলিমা নামের মহিলাটা বড়ই অসহায়, আমারা কেনো দাড়িয়ে থেকে তার বসত ঘর ভাঙতে যাবো। এখানে তার ঘর ভাঙার কোন ঘটনা ঘটেনি।
তালা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইকবাল হোসেনের কাছে অভিযোগ প্রাপ্তির বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমার সঠিক মনে নাই ফাইল না দেখে বলতে পারবো না।

  • 33
    Shares
এ বিভাগের আরও সংবাদ:
© All rights reserved © 2019 Sabuj Bangla News
Web Designed By : Prodip Roy