আগামী ১৩ ও ১৪ জানুয়ারি সোমবার ও মঙ্গলবার শেরপুরের মাছের মেলা আগামী ১৩ ও ১৪ জানুয়ারি সোমবার ও মঙ্গলবার শেরপুরের মাছের মেলা – সবুজ বাংলা নিউজ
  1. [email protected] : সবুজ বাংলা নিউজ : সবুজ বাংলা নিউজ
  2. [email protected] : বার্তা বিভাগ : বার্তা বিভাগ
রবিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২১, ১২:২৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
সাপাহারে মানা হচ্ছেনা লকডাউন বীরগঞ্জে রাবিস বালু দিয়ে চলছে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নিমার্ণ কাজ।এলাকাবাসীদের মানববন্ধন ঠাকুরগাঁওয়ে হারিয়ে যাচ্ছে কঁচু শাখ, নেই কোন কঁচু শাখের কদর চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা যুবদলের তারিফ বেগম খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনা করেছেন ফুলবাড়ীয়ার লেবু যাচ্ছে বিদেশে, বাড়ছে লেবু চাষের আগ্রহ নীলফামারীর ডিমলায় তিস্তার চরে ভুট্টার বাম্পার ফলন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মানুষকে আশান্বিত করেছেন’ -মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি বীরগঞ্জ পৌরসভায় পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে টিসিবি’র কার্যক্রম উদ্বোধন সাপাহারে ভ্রাম্যমান আদালতে দু’টি ইটভাটার অর্থদন্ড সাপাহারে কোভিড আক্রান্ত রোগীদের খোঁজ নিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন

আগামী ১৩ ও ১৪ জানুয়ারি সোমবার ও মঙ্গলবার শেরপুরের মাছের মেলা

প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময়: সোমবার, ১৩ জানুয়ারি, ২০২০
  • ২০ জন দেখেছেন

শেখ সাহেদ মিয়া, মৌলভীবাজার প্রতিনিধিঃ

মৌলভীবাজার শেরপুরে মাছের মেলা আগামী ১৩ ও ১৪ জানুয়ারি অনুষ্টিত হবে।

প্রায় ২০০ বছরের আগে থেকে চলে আসা ঐতিহ্যবাহী এ মাছের মেলা শেষ হবে আগামী মঙ্গলবার ভোরে।
ঐতিহ্যবাহী মাছের মেলায় মাছ কিনতে মৌলভীবাজার, সিলেট, হবিগঞ্জ, সুনামগঞ্জসহ বিভিন্ন স্থান থেকে আসবেন পাইকারী ব্যবসায়ীরা।
একেকটি আড়তে মাছের বাক্স-পেটরা খোলা হয়, আর দরদাম হাঁকা নিয়ে শুরু হয় হইচই। এদিকে প্রতিবছরের ন্যায় এবারও মেলার আয়োজকদের দাবি শেরপুরের মাছের মেলার জন্য স্থায়ীভাবে স্থান নির্ধারণ করা হয়।

‘মাছের মেলা এ অঞ্চলের একটি ঐতিহ্যবাহী মেলা। সিলেটের মধ্যে মৌলভীবাজার, সুনামগঞ্জ ও হবিগঞ্জের বিভিন্ন হাওর-নদীর মাছ ছাড়াও খুলনা, সাতক্ষীরা, যশোর, রাজশাহী, ময়মনসিংহসহ বিভিন্ন স্থানের মাছ আসে। এক রাতে এখানে দেড় থেকে দুই কোটি টাকার মাছ বিক্রি হয়।’

অত্র এলাকার বিভিন্ন মানুষের দাবী দীর্ঘদিন থেকে কুশিয়ারা নদীর তীর ঘেঁষে চলা এ মেলার স্থানটি ভূমিহীনদের বন্দোবস্ত দেয়ায় মেলা পরিচালনায় ব্যাঘাত ঘটছে। ঐতিহ্যবাহী এই মাছের মেলা টিকিয়ে রাখার জন্য স্থায়ী ভাবে স্থান নির্ধারণের জন্য তারা জেলা প্রশাদনের নিকট জোর দাবি জানান।

হাওর ও নদীতে স্বাভাবিক ভাবে বেড়ে উঠা মাছ ও দেশীয় প্রজাতির টাটকামাছ পাওয়ায় মেলায় মাছ ক্রয় করতে আসেন অনেকেই।মেলায় পছন্দের মাছ বিপুল পরিমান পাওয়া গেলেও দাম অনেকটা বেশী হয়।

এছাড়াও যদিও এই মাছের মেলা নামে পরিচিত হলেও মাছ মেলায় রয়েছে ফার্নিচার, গৃহস্থালী সামগ্রী, খেলনা সামগ্রীসহ গ্রামীণ ঐতিহ্যের দোকান। মেলাটি এখন সার্বজনীন উৎসবে রূপ নিয়েছে। মূল মেলার আগে ও পরে সময় বাড়িয়ে এটিকে তিন দিনের আয়োজনে রূপ দেওয়া হয়েছে,কিন্ত এখন আর তিনদিন হয় না,দুদিনেই মেলা শেষ হয়ে যায়।

‘শেরপুরের মেলায় এবার জুয়া ও অশ্লীলনৃত্য বন্ধ রয়েছে। গতবছরও জুয়া ও যাত্রার কার্যক্রম বন্ধ ছিল। মেলায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় পুলিশের তৎপরতা বাড়ানো হবে বলে জানা যায়।

  • 7
    Shares
এ বিভাগের আরও সংবাদ:
© All rights reserved © 2019 Sabuj Bangla News
Web Designed By : Prodip Roy