প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় সাফল্য অর্জন করছেন বীরগঞ্জ উপজেলার ইব্রাহিম মেমোরিয়াল শিক্ষা নিকেতন প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় সাফল্য অর্জন করছেন বীরগঞ্জ উপজেলার ইব্রাহিম মেমোরিয়াল শিক্ষা নিকেতন – সবুজ বাংলা নিউজ
  1. [email protected] : সবুজ বাংলা নিউজ : সবুজ বাংলা নিউজ
  2. [email protected] : বার্তা বিভাগ : বার্তা বিভাগ
শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১, ১১:২১ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
সাপাহারে মানা হচ্ছেনা লকডাউন বীরগঞ্জে রাবিস বালু দিয়ে চলছে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নিমার্ণ কাজ।এলাকাবাসীদের মানববন্ধন ঠাকুরগাঁওয়ে হারিয়ে যাচ্ছে কঁচু শাখ, নেই কোন কঁচু শাখের কদর চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা যুবদলের তারিফ বেগম খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনা করেছেন ফুলবাড়ীয়ার লেবু যাচ্ছে বিদেশে, বাড়ছে লেবু চাষের আগ্রহ নীলফামারীর ডিমলায় তিস্তার চরে ভুট্টার বাম্পার ফলন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মানুষকে আশান্বিত করেছেন’ -মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি বীরগঞ্জ পৌরসভায় পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে টিসিবি’র কার্যক্রম উদ্বোধন সাপাহারে ভ্রাম্যমান আদালতে দু’টি ইটভাটার অর্থদন্ড সাপাহারে কোভিড আক্রান্ত রোগীদের খোঁজ নিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন

প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় সাফল্য অর্জন করছেন বীরগঞ্জ উপজেলার ইব্রাহিম মেমোরিয়াল শিক্ষা নিকেতন

প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময়: বৃহস্পতিবার, ২ জানুয়ারি, ২০২০
  • ১০৪ জন দেখেছেন

বীরগঞ্জ, দিনাজপুর থেকে বিকাশ ঘোষ॥
জ্ঞানই শক্তি। আর জ্ঞান অর্জনের উৎকৃষ্ট স্থান হলো একটি আদর্শ শিক্ষা নিকেতন। শিশু শিক্ষিত হলে জাতি শিক্ষিত হবে এই শ্লোগানকে সামনে রেখে ১৯৮৯ সালে দিনাজপুরের বীরগঞ্জে অভিমুখে ইব্রাহিম মেমোরিয়াল শিক্ষা নিকেতন প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর থেকে দিন দিন সাফল্য অর্জন করে আসছে। এবারও প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষায় ৮২জন ছাত্র-ছাত্রী অংশগ্রহণ করে ৬১জন জি.পি.এ ৫ পেয়েছেন। যার মধ্যে ৫৯৫ পেয়ে প্রথম স্থান অর্জন করেছেন রমজান আলীর কন্যা রামিসা আক্তার, ৫৯৩ পেয়ে দ্বিতীয় স্থান অর্জন করেছেন গোপাল দেবনাথের কন্যা বর্ণা দেবনাথ, ৫৯২ পেয়ে তৃতীয় স্থান অর্জন করেছেন গোবিন্দ চন্দ্র রায়ের কন্যা লাবন্য রানী রায়। অত্র বিদ্যালয় থেকে প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা ২০১৪ সালে পরীক্ষার্থী অংশগ্রহন করেন ৭৪ জন তন্মধ্যে ৩৪ জন জি.পি.এ-৫, ২০১৫ সালে পরীক্ষার্থী অংশগ্রহন করেন ৭৮ জন তন্মধ্যে ৬১ জন জি.পি.এ-৫, ২০১৬ সালে পরীক্ষার্থী অংশগ্রহন করেন ৮৬ জন তন্মধ্যে ৪৬ জন জি.পি.এ-৫, ২০১৭ সালে পরীক্ষার্থী অংশগ্রহন করেন ৪৯ জন তন্মধ্যে ২০ জন জি.পি.এ-৫, ২০১৮ সালে পরীক্ষার্থী অংশগ্রহন করেন ৬০ জন তন্মধ্যে ৪৩ জন জি.পি.এ-৫, ২০১৯ সালে পরীক্ষার্থী অংশগ্রহন করেন ৮২ জন তন্মধ্যে ৬১ জন জি.পি.এ-৫ পেয়ে উর্ত্তীণ হয়। বৃহস্পতিবার ইব্রাহিম মেমোরিয়াল শিক্ষা নিকেতনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আলহাজ্ব এ্যাডভোকেট মোঃ হামিদুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, শিক্ষাই জাতির মেরুদন্ড। আর সেই শিক্ষার মূল্যভিত্তি প্রাথমিক শিক্ষা। কিন্তু সাধারণ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলোতে পাঠ্যদানের ব্যাপারে কেবল পাঠপুস্তকেই সীমাবদ্ধ। এছাড়া সুদক্ষ শিক্ষকের অভাব সহ বিভিন্ন সমস্যায় জর্জড়িত রয়েছে ফলে শিক্ষার মুল উদ্দেশ্য ব্যাহত হওয়ায় হতাশাগ্রস্ত অভিভাবকগণের কথা চিন্তা করে এবং শিশুদের সুপ্ত প্রতিভা বিকাশের লক্ষ্যে ১৯৮৭ সালে তৎকালীন মহাকুমা প্রশাসক আব্দুল জব্বার সহ স্থানীয় মুরুব্বী প্রয়াত আলহাজ্ব হবিবর রহমান, প্রয়াত খেরাজউদ্দিন শাহ্, আলহাজ্ব আব্দুল লতিফ মিয়া সহ বিভিন্ন শিক্ষানুরাগী ব্যক্তিগণের অনুপ্রেরণায় বীরগঞ্জ উপজেলায় একটি কিন্ডার গার্টেন বিদ্যালয় স্থাপনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করি এবং কার্যক্রম শুরু হয়। কিন্তু বিভিন্ন বাধাবিপত্তির কারণে তাৎক্ষনিকভাবে বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব হয়নি। পরবর্তীতে ১৯৮৯ সালে স্থানীয় উল্লেখিত গণ্যমান্য ব্যক্তি সহ বীরগঞ্জ উপজেলার মুন্সেফ জনাব শামসুর রহমান, ম্যাজিষ্ট্রেট আঃ তাঃ জাকির হোসেন, থানা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুর রহমান খান সাহেবের অনুপ্রেরণায় ইব্রাহিম কিন্ডার গার্টেন নামে একটি প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠিত হয়। অতপরঃ প্রতিষ্ঠানটি শিক্ষা বিকাশে খ্যাতি অর্জন করলে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তি সহ পরিচালনা কমিটির সিদ্ধান্ত মোতাবেক গত ২০০২ইং তারিখে ইব্রাহিম কিন্ডার প্লে শ্রেণি হতে নবম শ্রেণি পর্যন্ত কলবর বৃদ্ধি করে ইব্রাহিম মেমোরিয়াল শিক্ষা নিকেতন নামে প্রতিষ্ঠানটির কার্যক্রম শুরু করা হয়। এই প্রতিষ্ঠানের সাফল্য ধরে রাখতে নানা ভাবে আলোচনা পর্যালোচনা করে বর্তমানে দিন দিন এগিয়ে যাচ্ছে।

  • 363
    Shares
এ বিভাগের আরও সংবাদ:
© All rights reserved © 2019 Sabuj Bangla News
Web Designed By : Prodip Roy