ধামরাইয়ে হানাদার মুক্ত দিবস পালিত ধামরাইয়ে হানাদার মুক্ত দিবস পালিত – সবুজ বাংলা নিউজ
  1. [email protected] : সবুজ বাংলা নিউজ : সবুজ বাংলা নিউজ
  2. [email protected] : বার্তা বিভাগ : বার্তা বিভাগ
শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১, ১০:৫২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
সাপাহারে মানা হচ্ছেনা লকডাউন বীরগঞ্জে রাবিস বালু দিয়ে চলছে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নিমার্ণ কাজ।এলাকাবাসীদের মানববন্ধন ঠাকুরগাঁওয়ে হারিয়ে যাচ্ছে কঁচু শাখ, নেই কোন কঁচু শাখের কদর চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা যুবদলের তারিফ বেগম খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনা করেছেন ফুলবাড়ীয়ার লেবু যাচ্ছে বিদেশে, বাড়ছে লেবু চাষের আগ্রহ নীলফামারীর ডিমলায় তিস্তার চরে ভুট্টার বাম্পার ফলন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মানুষকে আশান্বিত করেছেন’ -মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি বীরগঞ্জ পৌরসভায় পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে টিসিবি’র কার্যক্রম উদ্বোধন সাপাহারে ভ্রাম্যমান আদালতে দু’টি ইটভাটার অর্থদন্ড সাপাহারে কোভিড আক্রান্ত রোগীদের খোঁজ নিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন

ধামরাইয়ে হানাদার মুক্ত দিবস পালিত

প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময়: বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর, ২০১৯
  • ২৯ জন দেখেছেন

 

মিজানুর রহমান( ধামরাই) প্রতিনিধি

ঢাকার ধামরাইয়ে ১৩ ডিসেম্বর ধামরাই হানাদার মুক্ত দিবস। এ উপলক্ষে বৃহস্পতিবার এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সকালে ধামরাইয়ের মুন্নু কমিউনিটি সেন্টারে ধামরাইয়ের সকল মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে ধামরাই মুক্ত দিবস পালন করা হয়।
ধামরাই উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রহমান খানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বায়রার সভাপতি এবং স্থানীয় সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব বেনজির আহমদ।
প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, ১৬ই ডিসেম্বর যখন আমরা জানতে পারলাম পাকিস্তানিরা আত্নসমর্পণ করেছে তখন আমরা গোলাবারুদ, ট্যাঙ্ক ফাটিয়ে আনন্দ করেছি।অনেক বিদেশি বিশেষ করে ভারতীয়রা আমাদের দেশের জন্য যুদ্ধ করেছে। আগামীকাল ভারতের মেঘালয়ে বাংলাদেশের পক্ষে স্বাধীনতা পালন করা হবে।
তিনি আরো বলেন, জিয়াউর রহমানের সময়ে ৫০ ভাগের বেশি মুসলিম লীগের ছিল। জিয়াউর রহমানের সময়ে কারফিউ দেয়া হতো। শত শত মুক্তিযোদ্ধাদের হত্যা করা হয়েছে। পাকিস্তান হলো একটি বর্বর রাষ্ট্র। যে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে আমরা যুদ্ধ করলাম, তারা এখনো আমাদের পিছু ছাড়ে নাই। এখন জামায়াত, বিএনপি দ্বারা আমাদের ক্ষতি করার চেষ্টা করেছে। ১৯ বার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যা করতে চেয়ে তারা ব্যর্থ হয়েছে।
এসময় বিশেষ অতিথি সাবেক কূটনীতিক বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ সোহরাব হোসেন, পৌর মেয়র আলহাজ্ব গোলাম কবির মোল্লা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন সাকু, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ মোহাদ্দেস হোসেন, উপজেলা ভাইস- চেয়ারম্যান সিরাজ উদ্দিন, মহিলা ভাইস- চেয়ারম্যান সোহানা জেসমিন মুক্তা, মুক্তিযোদ্ধা, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও সরকারী কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
অনুষ্ঠান শেষে মাননীয় সংসদ সদস্য বেনজির আহমদের পক্ষ থেকে সকল মুক্তিযোদ্ধাদের ৭১ এর চেতনায় মুক্তিযুদ্ধের প্রতীক সম্মলিত সবুজ রঙের শীতকালীন পোশাক উপহার দেওয়া হয়।

  • 35
    Shares
এ বিভাগের আরও সংবাদ:
© All rights reserved © 2019 Sabuj Bangla News
Web Designed By : Prodip Roy