সাতক্ষীরায় ফলের চেয়ে বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে পেঁয়াজ সাতক্ষীরায় ফলের চেয়ে বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে পেঁয়াজ – সবুজ বাংলা নিউজ
  1. [email protected] : সবুজ বাংলা নিউজ : সবুজ বাংলা নিউজ
  2. [email protected] : বার্তা বিভাগ : বার্তা বিভাগ
মঙ্গলবার, ০৩ অগাস্ট ২০২১, ০১:০২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে কলেজ ছাত্রের মৃত্যু শোকাবহ আগষ্টের প্রথম প্রহরে জেলা ছাত্রলীগের মোমবাতি প্রজ্জ্বলন অবৈধ ভাবে ভারত থেকে ফেরার পথে কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী সীমান্তে ৭ বাংলাদশী আটক বীরগঞ্জে সামান্য বৃষ্টিতে ব্রীজ ভেঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ ,দুর্ভোগে এলাকার ৫০ হাজার মানুষ বীরগঞ্জে নব- গঠিত ছাত্রলীগের মোমবাতি প্রজ্বলন বীরগঞ্জে জাতীয় শোক দিবস উদযাপন উপলক্ষে প্রস্ততিমুলক সভা অনুষ্ঠিত শোকাবহ আগস্টের প্রথম সন্ধায় বীরগঞ্জ ছাত্রলীগের শ্রদ্ধা শোকাবহ আগষ্টের প্রথম প্রহরে কুড়িগ্রাম জেলা ছাত্রলীগের মোমবাতি প্রজ্জ্বলন চীনের বেল্ট অ্যান্ড রোড এবং আফগানিস্তান ৫৮ বছরে পা রাখল গৌরীপুর সরকারি কলেজ বীরগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি গঠনঃ সভাপতি অন্তু ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম মুর্শিদ ধর্ম নিরপেক্ষতাই বঙ্গবন্ধুর আওয়ামী লীগের পরিচয় -মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি উলিপুরে যৌন নিপীড়নের চেষ্টার মামলায় অভিযুক্ত মুনসুর আলী গ্রেপ্তার গার্মেন্টস খোলার খবরে যাত্রীদের ঢল বীরগঞ্জে প্রতিপক্ষের হামলায় নিহত -১, ইউপি সদস্য সহ ৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা

সাতক্ষীরায় ফলের চেয়ে বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে পেঁয়াজ

বার্তা ডেক্স
  • প্রকাশের সময়: রবিবার, ১৭ নভেম্বর, ২০১৯
  • ৫৪ জন দেখেছেন

মোঃ এ হসান উল্লাহ আল মামুন, সাতক্ষীরা প্রতিনিধিঃ

সাতক্ষীরা জেলাসদরসহ আটটি থানার বিভিন্ন বাজারে এখন ফলের চেয়েও বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে পেঁয়াজ।

রোববার সাতক্ষীরা শহরের সবচেয়ে বড় বাজার সুলতানপুরে প্রতি কেজি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ২৩০ থেকে ২৪০ টাকা। আর পঁচা পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ২০০ টাকা।

আবার একই বাজারে ব্যবসায়ীরা ফলমূলও বিক্রি করছেন। তবে কোনো ফলের দাম পেঁয়াজের চেয়ে বেশি নয়। ডালিম বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি ২০০-২২০ টাকা, আপেল ১১০-১৩০ টাকা, আঙ্গুর ১৮০ টাকা, কমলা লেবু ১২০ আর পেয়ারা ৬০ টাকা।

ফল ব্যবসায়ী আনোয়ার হোসেন বলেন, বর্তমানে ফলমূলের চেয়ে পেঁয়াজের চেয়ে দাম অনেক বেশী। কোনো ফলের দাম প্রতি কেজি ২৪০ টাকা নেই। সর্বোচ্চ ডালিমের দাম ২০০-২২০ টাকা কেজি।

অপরদিকে, বড় বাজারের পেঁয়াজ ব্যবসায়ী শুকুমার বলেন, প্রতি কেজি পেঁয়াজ পাইকারি বিক্রি করছি ২১০-২২০ টাকা, আর খুচরা বাজারে বিক্রি হচ্ছে ২৩০-৪০ টাকা দরে। বাজারে পেঁয়াজের আমদানি কম থাকায় দাম বেশি। সরবরাহ স্বাভাবিক হলে দামও কমে যাবে।

ভোমরা বন্দর সিএন্ডএফ অ্যাসোসিয়েশনের সাধরণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান নাসিম বলেন, দেশে পেঁয়াজের চাহিদার বড় অংশ আসে ভারত থেকে। ভারত সরকার পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করে দিয়েছে। যার কারণে পেঁয়াজের মূল্য বেড়েছে। ভারতীয় পেঁয়াজ না আসলে ২০০ টাকার কমে আর পাওয়া যাবে না বলে তার ধারনা। তবে দেশীয় পেঁয়াজ বাজারে আসলে কিছুটা দাম কমে যাবে।

এদিকে, পেঁয়াজের মূল্য স্বাভাবিক রাখতে বাজারে বাজারে জেলা প্রশাসন ও উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে অভিযান পরিচালনা অব্যাহত।।

এ বিভাগের আরও সংবাদ:
© All rights reserved © 2019 Sabuj Bangla News
Web Designed By : Prodip Roy