1. [email protected] : সবুজ বাংলা নিউজ : সবুজ বাংলা নিউজ
  2. [email protected] : বার্তা বিভাগ : বার্তা বিভাগ
রবিবার, ১১ এপ্রিল ২০২১, ০৭:০৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বীরগঞ্জে অতিদরিদ্রদের কর্মসংস্থান কর্মসূচির উদ্বোধন কৃষিতে বাংলাদেশ স্বাবলম্বী -মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি দিনাজপুর মেডিকেলে চান্স প্রাপ্ত সাবিহা’র পরিবারের সাথে কুশল বিনিময় করেন জেলা যুবলীগের সভাপতি রাশেদ পারভেজ কিশোরগঞ্জে চাঁড়াল কাটা নদী এখন ধু-ধু বালুচর কুড়িগ্রামের রাজারহাটে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল অফিস উদ্বোধন কুড়িগ্রামে আইনজীবীর সাথে দুই মাদক ব্যবসায়ী হিরোইন সহ আটক দিনাজপুরে জাগ্রত দিনাজপুর নামে স্বেচ্ছাসেবক সংগঠনের আত্মপ্রকাশ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মেয়র সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম মানুষ যদি সচেতন না হয় চিকিৎসক দিয়ে করোনা নির্মুল করা সম্ভব নয় ————————-হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের ইতিহাস ঐতিহ্য রক্ষায় পুরোনো মন্দিরগুলোকে সংস্কারের উদ্যোগ নিয়েছে -মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি করোনা ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণ করেছে জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম

দিনাজপুরের দশমাইলে মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি স্তম্ভ নির্মান কাজের ভিত্তি প্রস্তর উদ্বোধনকালে এমপি গোপাল আওয়ামী লীগ স্বচ্ছ ও ত্যাগী মানুষের জন্য

প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময়: শনিবার, ২৬ অক্টোবর, ২০১৯
  • ১৭ জন দেখেছেন

বীরগঞ্জ, দিনাজপুর থেকে বিকাশ ঘোষ ॥- আওয়ামী লীগ স্বচ্ছ ও ত্যাগী মানুষের জন্য। এখানে কোন অপরাধীদের জায়গা নেই। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশব্যাপী যে শুদ্ধি অভিযান শুরু হয়েছে সকল পর্যায় সেই অভিযান চলছে। অপরাধী যে দলেরই হোক সেটি বড় কথা নয়, অপরাধীকে শাস্তি পেতেই হবে।
২৬ অক্টোবর ২০১৯ শনিবার দুপুরে দিনাজপুরের কাহারোল উপজেলার দশমাইল মোড়ে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) এর বাস্তবায়নে “মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি স্তম্ভ” নির্মাণ কাজের ভিত্তি প্রস্তর উদ্বোধন শেষে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে জাতীয় সংসদ সদস্য মনোরঞ্জন শীল গোপাল এসব কথা বলেন।
উল্লেখ্য, মুক্তিযুদ্ধের ঐতিহাসিক স্থানসমুহ সংরক্ষণ ও মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি জাদুঘর নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় দিনাজপুরের কাহারোল উপজেলার দশমাইল মোড়ে “মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি স্তম্ভ” নির্মাণ কাজের ভিত্তি প্রস্তর উদ্বোধন করা হয়েছে। যার ব্যয় ধরা হয়েছে ৩৫ লাখ টাকা।
মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি আরো বলেন, ১৯৭১ সালে এই দশমাইল মোড়ে অস্ত্রধারী হানাদার বাহিনীর হাতে নিহত হন দুই ইপিআর সদস্য। তারা হলেন শহীদ হাবিলদার মো. মিয়া হোসেন ও শহীদ লে. মো. মোস্তাফিজুর রহমান। তাদের এই দশমাইল মোড়ে জানাজা বিহীন গণ কবর দেয়া হয়। তাদেরসহ শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের স্মৃতি নতুন প্রজন্মকে জানানোর জন্য এই মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি স্তম্ভ নির্মান করা হচ্ছে। যাতে করে আমাদের নতুন প্রজন্মকে স্বাধীনতার চেতনার সাথে পরিচয় করিয়ে দিতে পারি।
এমপি গোপাল বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম না হলে দেশ স্বাধীন হতো না। ৭১ এ বঙ্গবন্ধুর ডাকে সারা দিয়ে সাড়ে সাত কোটি মানুষ একত্রিত হয়েছিল। ঝাপিয়ে পড়েছিল অস্ত্রধারী হানাদার বাহিনীর উপর। স্বাধীন করেছে এই দেশ। আর আমরা পেয়েছি লাল সবুজের পতাকা।
সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা প্রকৌশলী ইঞ্জিনিয়ার আব্দুল মান্নাফ, ৫নং সুন্দরপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিদুল ইসলাম মাস্টার, সাধারণ সম্পাদক হামিদুল ইসলাম। এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদ সদস্য মিরা মাহবুব, প্রবীন আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল সিদ্দিক মাস্টারসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ প্রমুখ।

এ বিভাগের আরও সংবাদ:
© All rights reserved © 2019 Sabuj Bangla News
Web Designed By : Prodip Roy