বীরগঞ্জ পল্লীতে নানা সমস্যায় ব্যাহত হচ্ছে শিক্ষা কার্যক্রম বীরগঞ্জ পল্লীতে নানা সমস্যায় ব্যাহত হচ্ছে শিক্ষা কার্যক্রম – সবুজ বাংলা নিউজ
  1. [email protected] : সবুজ বাংলা নিউজ : সবুজ বাংলা নিউজ
  2. [email protected] : বার্তা বিভাগ : বার্তা বিভাগ
বৃহস্পতিবার, ১৭ জুন ২০২১, ১১:২৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কুড়িগ্রামে শিশুশ্রম সবচেয়ে বেশি কাহারোল উপজেলার রসুলপুর ইউনিয়ন পরিষদের আয়োজনে মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি’র রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত দিনাজপুর বীরগঞ্জে ৯ নং সাতোর ইউনিয়নের দলুয়া উচ্চ বিদ্যালয় ও মহাবিদ্যালয় আয়োজনে মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপির রোগমুক্তি কামনায় দোয়া অনুষ্ঠিত বীরগঞ্জে আর্দশ কৃষকদের মাঝে প্রশিক্ষণের শুভ উদ্বোধন সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত এক নারীর কাহারোলে মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি’র রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত বীরগঞ্জ উপজেলা রিক্সা ও ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের আয়োজনে মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি’র রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত কুড়িগ্রামে ‘জাম্ক ফুড, পথ ও খোলা খাবার না খেলে অনেক রোগ থেকে মুক্তি মিলে’ বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত কুড়িগ্রামে ৩টি ওয়ার্ডে চলাচলে বিধি নিষেধ আরোপ বীরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের আয়োজনে এমপি গোপাল এর রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত

বীরগঞ্জ পল্লীতে নানা সমস্যায় ব্যাহত হচ্ছে শিক্ষা কার্যক্রম

বার্তা ডেক্স
  • প্রকাশের সময়: বুধবার, ৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
  • ৪৩ জন দেখেছেন

বিকাশ ঘোষ, নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
শিক্ষার্থী পর্যাপ্ত থাকলেও প্রয়োজনের তুলনায় নেই শিক্ষক ও শ্রেণিকক্ষ। ফলে শিক্ষার্থী ঝড়ে পড়ছে, শিক্ষা কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে দিনাজপুরের বীরগঞ্জ পল্লীতে। যেখানে আজও লাগেনি উন্নয়নের ছোয়া। বীরগঞ্জ পল্লীতে শ্রেণিকক্ষ সংকটের কারণে স্কুলের অফিস কক্ষে নেওয়া হচ্ছে ক্লাস। এক বেঞ্চে গাদাগাদি করে বসতে হয় শিক্ষার্থীদের।

এতে বিঘিœত হচ্ছে শিক্ষার পরিবেশ। দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলার শতগ্রাম ইউপি’র রাংঙ্গালীপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দীর্ঘদিন ধরে শিক্ষক ও আসন সংকটে শিক্ষার এ অবস্থা বিরাজ করছে। নতুন ভবন বরাদ্দ না পাওয়ায় শ্রেণিকক্ষের মারাত্মক সংকট সৃষ্টি হয়েছে। জানা যায়, রাংঙ্গালীপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪ জন শিক্ষক এবং ২৫৯ জন শিক্ষার্থী রয়েছে।

এই স্কুলের অফিস কক্ষসহ ২টি ঘর এবং আরেকটি টিনশেড ঘর রয়েছে। রাংঙ্গালীপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ ফজলুল হক জানান,প্রাক-প্রাথমিক শিশুদের ক্লাস নিতে হয় অফিস কক্ষে। প্রথম ও তৃতীয় শ্রেণির ক্লাশ নিতে হয় বেড়ার ঘরে। বর্ষার সময় এবং রোদে শিক্ষার্থীদের এখানে ক্লাস করতে কষ্ট হয়।

রোদের তাপে শিশুরা বসে থাকতে পারে না। আবার বৃষ্টির দিন পানিও পড়ে কোন কোন স্থানে। এই স্কুলে বর্তমানে আমি সহ ৪ জন শিক্ষক এবং ২৫৯ জন শিক্ষার্থী রয়েছে। এসব সংকটের কথা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জানানো হলেও এখন পর্য়ন্ত কোনো নজরে আসে নি।

  • 28
    Shares
এ বিভাগের আরও সংবাদ:
© All rights reserved © 2019 Sabuj Bangla News
Web Designed By : Prodip Roy