র‌্যাব-১৩ এর পৃথক দুটি অভিযানে ৯৩ পিচ ফেনসিডিল এবং ৯০ কেজি গাঁজা সহ গ্রেপ্তার ৪ ও ১টি প্রাইভেট কার আটক

0
7

বর্তমান সময়ে দেশের তরুণ সমাজের মধ্যে ভারতীয় কফ সিরাপ ‘ফেনসিডিল’ ও ‘গাঁজার’ আসক্তি বড় সমস্যা ৷ যদিও কোনো সঠিক পরিসংখ্যান নেই, তবে এর কারণেই বৃদ্ধি পাচ্ছে এর চোরাচালান।

র‌্যাব-১৩ এর একটি টিম প্রতিদিনের ন্যায় টহল ডিউটি চলাকালীন সময়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে , লালমনিরহাট জেলার হাতীবান্ধা থানাধীন এলাকায় মাদকদ্রব্য তথা ফেনসিডিল বিক্রয়ের জন্য অপেক্ষা করছে এক মাদক ব্যবসায়ী। অভিযানিক দল উক্ত স্থানে পৌঁছালে, উপস্থিতি টের পেয়ে আসামি দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করলে। র‌্যাব-১৩ এর সদস্যরা তাকে একটি বস্তাসহ ধরে ফেলে, তল্লাশি করে বস্তা থেকে ৯৩ পিস ফেনসিডিল উদ্ধার করে এবং আসামি শ্রী রজনীকান্ত অধিকারী কে গ্রেপ্তার করে।

পরবর্তীতে ২০ জুলাই ২০২০ গভীর রাতে অপর একটি অভিযান পরিচালনা করে র‌্যাব-১৩।
খবর ছিল ভারতের সীমান্ত থেকে আসবে গাঁজার একটি বড় চালান রংপুরের দিকে । এমন খবর পেয়ে র‌্যাব-১৩ এর আভিযানিক দল মাঠে নামে। রংপুর টু কুড়িগ্রাম মহাসড়কে চেকপোস্টের মাধ্যমে চলতে থাকে গাড়ি চেক। এদিকে মাদক ব্যবসায়ীরা ও সতর্ক হয়ে যায়, প্রায় ২ দিন পর ধরা পড়ায় রাবের জালে।

চলছিল গাড়ি চেক, এমন সময় একটি প্রাইভেট কারের গতিবিধি সন্দেহ হলে তা র‌্যাবের কিছু চৌকোস সদস্যের নজরে আসে। গাড়িটি র‌্যাবের হেফাজতে নিয়ে তল্লাশি করলে ব্যাক ডালায় বিশেষ কায়দায় লুকানো অবস্থায় ৯০ কেজি গাঁজা উদ্ধার করে। ১। মোঃ রফিকুল ইসলাম রফিক ২। তহিদুল ইসলাম ৩। মোঃ রবিউল ইসলাম বাবু দেরকে আটক করে র‌্যাব-১৩ । এরা তিনজনই ছিল সঙ্ঘবদ্ধ মাদকচক্রের সংক্রিয় সদস্য। এবং অর্ডার পেলে দেশের বিভিন্ন স্থানে মাদক সরবরাহ করত।

আসুন আমরা সবাই মাদককে না বলি, মাদকমুক্ত সমাজ বিনির্মাণে অংশগ্রহণ করি।

সাথে থাকুন, তথ্য দিন।
আমরা সর্বদা আপনার পাশেইর‌্যাব-১৩ এর পৃথক দুটি অভিযানে ৯৩ পিচ ফেনসিডিল এবং ৯০ কেজি গাঁজা সহ গ্রেপ্তার ৪

  • 2
    Shares