বীরগঞ্জে স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না অবৈধ যানবাহন ভটভটি ও অটো

0
0

 

বিকাশ ঘোষ, বীরগঞ্জ প্রতিনিধি :

দিনাজপুরের বীরগঞ্জে অবৈধ যানবাহন পাগলু,অটো ও ভটভটি মহাসড়কে চালকসহ ১৫/২০ জনে সামাজিক দূরত্ব বজায় না রেখে ৬০ শতাংশ অতিরিক্ত ভাড়া বৃদ্ধি করে চলাচল করললেও দেখার কেউ নেই। স্বাস্থ্যবিধি তোয়াক্কা না করে দিন-রাত দাপিয়ে বেরাচ্ছেন অবৈধ যান। শুধু আসনে শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখা তো দূরের কথা কোনো স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না বীরগঞ্জ উপজেলার ভটভটিগুলো। ফলে করোনাভাইরাস সংক্রমণের উচ্চ ঝুঁকিতে রয়েছে এসব ছোট যানগুলোর যাত্রীরা। আবার এ থেকে ছড়াতে পারে সর্বত্র। বৃহস্পতিবার (৪জুন) সকালে বীরগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের গ্রামে ঘুরে দেখা গেছে এইসব অবৈধ যানে ওঠার সময় যাত্রীর তাপমাত্রা পরীক্ষা করার কথা থাকলেও বেশির ভাগ গাড়িই তা করছে না। বীরগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের কঠোর হুশিয়ারী থাকা সত্ত্বেও অবৈধ ভটভটি,ট্রাক্টর, পাগলু, অটোচার্জারে যাত্রী উঠার সময় জীবাণুনাশক স্প্রেও করা হচ্ছে না। এছাড়া গাড়ীর ড্রাইভারের পাশে দুই-তিনজন গায়ে হাত দিয়ে ঘোঁষাঘোঁষি করে গাড়ী চালাচ্ছেন। এসব যানে অনেকের মুখে নেই মাস্ক। এতে উচ্চ ঝুঁকি রয়েছে করোনাভাইরাস সংক্রমণ বাড়ার। অন্যদিকে গণপরিবহনে হেলপার প্রবেশপথে দাঁড়িয়ে থেকে গায়ে হাত দিয়ে যাত্রী তুলছেন। যাত্রীরা বলছেন,বাসের হেলপার প্রবেশপথে না দাঁড়িয়ে দরজার সামনে প্রথম সিট বসতে হবে। সেখানে বসে ওঠার সময় যাত্রীর তাপমাত্রা পরীক্ষা করলে করোনার ঝুঁকি কমবে। শারীরিক দূরত্ব মানা ছাড়া অন্য কোনো স্বাস্থ্যবিধির বালাই নেই তাড়াহুড়ো করে যাত্রী তোলার সময়ে গায়ে হাত দিচ্ছেন হেলপার। তবে অধিকাংশ যাত্রী মাস্ক ছাড়াই যাত্রা করছেন। বীরগঞ্জ মহাসড়কে অবৈধ ভটভটি,পাগলু, ট্রাক্টর ও অটো চলাচল করার কারণে দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছেন প্রতিনিয়ত। এসব অবৈধ যানে চলাচল করার কারণে দুর্ঘটনায় হারাচ্ছে চোখ,পায়,হাত ও প্রাণ। অনেকে কাঁটাচ্ছেন কষ্টের জীবন।

  • 48
    Shares