বীরগঞ্জে স্ত্রী-সন্তানকে তাড়িয়ে স্বামীর দ্বিতীয় বিয়ে। প্রথম স্ত্রীকে মারপিট করে ঘরে আটক “পুলিশ কতৃক উদ্ধার

0
60

 

বিকাশ ঘোষ,বীরগঞ্জ (দিনাজপুর)প্রতিনিধি:

দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলার মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের রসুলপুর গ্রামের মোঃ মোজাহারুল ইসলামের কন্যা মোছা: ইতি আক্তারের সাথে একই উপজেলার শিবরামপুর ইউনিয়নের সাহাডুবি গ্রামের শফিউল্লাহ এর ছেলে মোঃ মামুনুর রশিদের সাথে ৩ বছর পূর্বে আনুস্ঠানিক বিবাহ হয়। ইতির গর্ভের একমাত্র পুত্র সন্তান ইশাত হোসন (২) কে যৌতুকের দাবীতে নির্যাতন করে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেন। নিরুপায় হয়ে ইতি গত ৫/১১/২০১৯ তারিখকে দিনাজপুর বিজ্ঞ আদালতে একটি মামলা দারের করেন যাহা বিচারাধীন রয়েছে। এরই মধ্যে গত ৯ সেপ্টেম্বর/২০ বুধবার দিবাগত রাতে মামুনুর রশিদ দ্বিতীয় বিয়ে করলে অসহায় ইতি আক্তার সংবাদ পেয়ে ১২ সেপ্টেম্বর শনিবার দুপুরে পৃত্রালয় থেকে স্বামীর বাড়িতে গেলে মুঠোফোনে তার স্বামীর বড় ভাই বেলায়েত এর নির্দেশে আসামীগণ ইতিকে হত্যার উদ্দেশ্যে গলা টিপে ধরে, আহত রক্তাক্ত অবস্থায় একটি ঘরে তালাবন্ধ করে আটকে রাখে। সংবাদ পেয়ে বীরগঞ্জ থানার এসআই রেজাউল করিমের নেতৃত্বে সঙ্গীয় পুলিশ ফোর্স ঘটনাস্থলে গিয়ে স্থানীয়দের সহযোগিতা নিয়ে ইতিকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে এবং তাৎক্ষিকভাবে ঘটনাস্থল থেকে রুমিনুল হাসান মুসা,জাহিদ হাসান ও রিপনকে আটক করেন । এ ব‍্যাপারে বীরগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের হয় যার নং ৭ তারিখ ১২/০৯/২০২০। এরির্পোট লেখা পর্যন্ত ইতি আক্তার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছিল।

 

 

  • 24
    Shares