প্রাথমিকের অনেক শিক্ষার্থী জানে না অনলাইন ক্লাস কী

0
4

মোঃ রাব্বি ইসলাম আব্দুল্লাহ,
সংবাদদাতা নীলফামারী।

নীলফামারীতে অনেক প্রাথমিকের শিশুরা করতে পারছে না অনলাইন ক্লাস। নীলফামারীর শহর অঞ্চলের কিছু শিশু অনলাইনে ক্লাস করতে পারলেও তুলনামূলক ভাবে পিছিয়ে আছে গ্রামের শিশুরা।

পরিসংখ্যান এ দেখা যায় শহরে স্মার্ট ফোন ব্যাবহার করে ৪০-৫০শতাংশ শিশুর পরিবার। সাধারণ বাটন মোবাইল ব্যাবহার করে ৪৫শতাংশের মতো প্রায় বাকি ৫ শতাংশ জানেই না অনলাইন ক্লাস কি।

গ্রামের পরিসংখ্যানে দেখা যায় স্মার্ট ফোন ব্যাবহার করে ৫-১০ শতাংশ শিশুর পরিবার। সাধারণ বাটন মোবাইল ব্যাবহার করে ৩০-৪০ শতাংশ। গ্রামের অনেক শিশু জানেই না অনলাইন ক্লাস কি ধরনের।

আরাজী রামকলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বলেন, আমরা যতটা সম্ভব সরকারি বিধিনিষেধ মেনেই অনেক শিক্ষার্থীদের বাসয় যেয়ে খবর নিচ্ছি।
উপবৃত্তি তালিকা সম্পন্ন করেছি।ইতিমধ্যে অনেকে উপবৃত্তি পেয়েছে।
করোনা কালীন সময়ে যাদের বাসায় স্মার্ট ফোন আছে তারা ক্লাস করতে পারছে। বাকিরা বঞ্চিত থেকে যাচ্ছে।

একজন অভিভাবক বলেন, হামার তো টাচ্ মোবাইল নাই। হামার ছোয়ার ঘরও জানে অনলাইন ক্লাস কেমন করি করে। স্কুল কোনদিন খুলিবে তাও জানি না হামরা। ছোয়াগিলা কাহো পড়া লেখা করির চায় না। স্কুল গেইলে তাও এনা পড়া পরে।

এভাবে পিছিয়ে আছে হাজারো শিশু।
অনলাইন ক্লাস পৌঁছাতে পারছেই না তাদের কাছে।

 

 

 

 

  • 12
    Shares