প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সময়োপযোগী পদক্ষেপে এ দেশ থেকে করোনাভাইরাস খুব দ্রুতই বিদায় নিবে ইনশাআল্লাহ-এমপি জুঁই

0
0

নিজস্ব প্রতিবেদক, সবুজ বাংলা নিউজ ll

করোনা দূর্যোগ আমাদের কাছে একটি নতুন অভিজ্ঞতা। বিষয়টিতে হতবিহবল হয়ে পড়েছে বাংলাদেশসহ সারা বিশ্বের মানুষ। আল্লাহর রহমতে পৃথিবীর অনেক দেশের চেয়ে বাংলাদেশের অবস্থা তুলনামূলক ভালো।

আমরা সবাই একটা যুদ্ধে অবতীর্ণ হয়েছি। করোনা পৃথিবী থেকে কবে বিদায় হবে জানি না, তবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সময়োপযোগী পদক্ষেপে এ দেশ থেকে করোনাভাইরাস খুব দ্রুতই বিদায় নিবে ইনশাআল্লাহ।

আমাদের স্বাস’্য বিধি মেনে চলতে হবে। বাইরে ঘুরলেই আপনি বীর পুরুষ হয়ে যাবেন না। তাই বাহাদুরি দেখাতে অপ্রয়োজনে বাইরে ঘোরাঘুরি বন্ধ করে ঘরে থাকুন। কারণ আপনি বাইরে ঘুরে করোনা ভাইরাস ঘরে নিয়ে আসবেন আর সে ভাইরাসে সংক্রমিত হবে আপনার আপনজন। আপনজন কে বাচাঁতে স্বাস’্যবিধি মেনে নিরাপদে থাকুন।

৩ জুন বুধবার সকালে দিনাজপুর জেলা ও দায়রা জজ’র অফিস কক্ষে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের স’ায়ী কমিটির সদস্য ও সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য এ্যাড. জাকিয়া তাবাসসুম জুঁই দিনাজপুর জেলা জজ আদালত জামে মসজিদে অনুদান প্রদানকালে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

তিনি আরো বলেন, আমি আমার বাবার পথ ধরে রাজনীতিতে এসেছি। দেশরত্ন শেখ হাসিনার আশির্বাদে আজ আমি সংসদ সদস্য। আমি ছোটবেলায় আমার বাবা দিনাজপুর জেলা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এ্যাড. আজিজুল ইসলামের সাথে দিনাজপুরের বার লাইব্রেরী তথা আদালত অঙ্গনে আসতে শুরু করি।

আর তখন থেকেই আদালতের মসজিদটি জরাজীর্ণ অবস’ায় দেখতাম। কি অবস’ায় সবাই কষ্ট করে নামাজ আদায় করে, তা আমি সব সময় প্রত্যক্ষ করেছি। সেজন্য আমার চিন্তা আসে- মসজিদটির উন্নয়ন করা প্রয়োজন। তাই জেলা জজ সাহেবের মাধ্যমে আমি আমার ব্যাক্তিগত বরাদ্দ হতে ৮ লাখ টাকা অনুদান প্রদানের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করি। এটি দিয়ে মসজিদের উন্নয়ন ও সোলার লাইট সংযুক্ত করে আদালত প্রাঙ্গন আলোকিত করার ব্যবস’া করা হবে।

করোনা পরিসি’তির কারনে নির্দিষ্ট সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে প্রাথমিকভাবে ২ লাখ টাকা অনুদানের চেক হস্তান্তর করা হয়। এভাবে পর্যায়ক্রমে ঘোষিত ৮ লাখ টাকা প্রদান করা হবে। এ সময় উপসি’ত ছিলেন, দিনাজপুর জেলা ও দায়রা জজ আজিজ আহমদ ভূঁঞা, স্পেশাল জজ মোঃ মাহমুদুল করিম, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের জজ শরীফ উদ্দীন আহমদ,

জেলা জজ আদালতের পিপি এ্যাড. রবিউল ইসলাম রবি, চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ আয়েজ উদ্দিন, অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মোঃ আনোয়ারুল হক, অতিরিক্ত চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট বিশ্বনাথ মন্ডল, যুগ্ম জজ এ. এস. এম তাসকিনুল হক, মোঃ রাজু আহমদ ও আব্দুল মালেক, সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট ইসমাঈল হোসেনসহ বিভিন্ন পর্যায়ের বিচারকবৃন্দ।

এছাড়াও উপসি’ত ছিলেন, প্রবীণ আইনজীবী এ্যাড. মোঃ খলিলুর রহমান, এ্যাড. মোস্তফা কামাল (২) প্রমূখ। শেষে করোনা পরিসি’তির উত্তরনের জন্য বাংলাদেশসহ সারা পৃথিবীর করোনায় নিহতদের আত্মার মাগফিরাত কামনা ও আক্রান্তদের দ্রুত আরোগ্যসহ এ দূর্যোগে ক্ষতিগ্রস’ মানুষের দূর্ভোগ লাঘবে বিশেষ মুনাজাত করা হয়।

  • 47
    Shares