পলাশবাড়ীতে ফিট ব্যবসায়ী হিরু কর্তৃক প্রতিবন্ধীর স্রীর সর্বনাশ

0
7

 

পলাশবাড়ী উপজেলার পবনাপুর ইউনিয়নের বরকতপুর উত্তরপাড়া গ্রামে মের্সাস মোজাহিদ ট্রের্ডাস এর ফিট ব্যবসায়ী হিরু ফারাজী কর্তৃক প্রতিবন্ধীর স্রীর সর্বনাশ ঘটনাটি ঘটেছে বরকতপুর গ্রামে।

অভিযোগ ও সরেজমিন সূত্রে জানা যায়, উপজেলার পবনাপুর ইউপির বরকতপুর গ্রামের প্রতিবন্ধী শাহাজান মিয়ার স্রী কল্পনা বেগমের সাথে পাশাপাশি বাড়ীর আহাদুল ফারাজীর লম্পট ছেলে হিরু ফারাজী দীর্ঘদিন যাবৎ কূ-প্রস্তাব দিয়ে আসত।
এরিধারাহিকতায় গত ৪ সেপ্টেম্বর গভীর রাতে কল্পনা বেগমের শোয়ার ঘড়ে প্রবেশ করে এবং জোড়পূর্বক ভাবে ধর্ষনের চেষ্টা করে।

অনেক ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে কল্পনার স্বামী প্রতিবন্ধী শাহাজান মিয়া টের পেয়ে হিরু ফারাজীকে হাতেনাতে ধরে ফেলে।
পরে এলাকাবাসী রাতেই তাদের দুইজনকে বাড়ী থেকে বের করে দেয়। এবং সিধান্ত হয় তাদের বিবাহ দেওয়া হবে। লম্পট হিরু মিয়া সু-কৌশলে কল্পনাকে নিজের বাড়ীতে রেখেই পালিয়ে যায়।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়,ঘটনাটি সত্য এর আগেও এই লম্পট নারী লোভী হিরুর বিরুদ্ধে একাধিক ঘটনা রয়েছে।
ভুক্তভোগীর পরিবার জানান, লম্পট হিরুর স্রী থাকা সত্বেও পরের স্রীর উপর নজর দেয় এরকম ঘটনা দীর্ঘদিন থেকে ঘটে আসছে।
অভিযোগকারী জানান, প্রায় ৫ বছর যাবৎ আমার সাথে তার প্রেমসহ অবৈধ সম্পর্ক করে আসছে। আমি তার বিরুদ্ধে অভিযোগ করছি সুষ্ট তদন্ত পূর্বক ব্যবস্তা গ্রহনের জন্য প্রশাসনের সু-দৃষ্টি কামনা করছি।
অভিযোগের বিষয়ে হিরু ফারাজীর সাথে মুঠোফোনে যোগোযোগ করলে তিনি বলেন, আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা ভিত্তিহীন অভিযোগ এনে হয়রানীর চেষ্টা করছে।

এবিষয়ে প্রতিবন্ধী শাহাজান মিয়া বাদী হয়ে হিরু ফারাজীকে অভিযুক্ত করে পলাশবাড়ী উপজেলার হরিনাবাড়ী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে একটি লেখিত অভিযোগ দায়ের করেন।
অভিযোগের বিষয়ে হরিনাবাড়ী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের অফিসার ইনর্চাজ রাকিব হোসনের সাথে মুঠোফোনে কথা বললে তিনি জানান অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত পূর্বক অভিযুক্ত ব্যক্তির বিরুদ্ধে ব্যবস্তা গ্রহন করা হবে

  • 3
    Shares