দিনাজপুরে ডেকোরেটর ও কমিউনিটি সেন্টার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পরিচালনার অনুমতি চেয়ে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি

দিনাজপুর প্রতিনিধি

0
8

দিনাজপুরে করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) কারণে দীর্ঘদিন যাবত বন্ধকৃত জেলা ডেকোরেটর ও কমিউনিটি সেন্টারসমূহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করার অনুমতি চেয়ে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেছে। মঙ্গলবার (২১ জুলাই) দুপুরে দিনাজপুর জেলা প্রশাসক মোঃ মাহমুদুল আলম-এর মাধ্যম স্মারকলিপি প্রদান করে দিনাজপুর জেলা ডেকোরেটর ও কমিউনিটি সেন্টার মালিক সমিতির নেতৃবৃন্দ।

স্মারকলিপি প্রদানের সময় দিনাজপুর জেলা ডেকোরেটর ও কমিউনিটি সেন্টার মালিক সমিতির সভাপতি মোঃ মোবারক বাবু, সহ-সভাপতি সৈয়দ মনতাজুল ইসলাম (মনতা), সাধারণ সম্পাদক মোঃ কামরুল ইসলাম কামালসহ অন্যান্য সদস্য, কারিগর, বাবুর্চি ও পরিবেশনকারী দল উপস্থিত ছিলেন।

স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়, গত ১৯ মার্চ ২০২০ হতে অদ্যবদি দীর্ঘ ৪ মাস ধরে প্রধানমন্ত্রী’র যুগান্তকারী নির্দেশনা মেনে সরকারের পক্ষে সমর্থন জানিয়ে দেশ ও জাতির স্বার্থে আমাদের প্রতিষ্ঠানসমূহ বন্ধ আছে। এ যাবত দেশের অনেক প্রতিষ্ঠান প্রধানমন্ত্রী’র ঘোষিত প্রণোদনা সহযোগিতা পেয়েছে। কিন্তু দেশের কোথাও কোন ডেকোরেটর ও কমিউনিটি সেন্টার মালিকগণ এবং কর্মচারি সহযোগিতা পায়নি। এমতাবস্থায় আমাদের ডেকোরেটর ও কমিউনিটি সেন্টারসহ প্রায় ২৬০০ মালিক এবং কয়েক হাজার কর্মচারি এই প্রতিষ্ঠানসমূহের সাথে জরিত এবং সকলের আয়ের উৎস বেতন ভাতা না থাকায় করোনা মহামারির এই সংকটময় সময়ে পরিবার পরিজন নিয়ে আমরা সকলে মানবেতর জীবন যাপন করছি।

মালিক ও কর্মচারিগণ লোকলজ্জার কারণে না পারছে কোথাও হাত পাততে, না পারছে মাসের পর মাস দুঃসহ কষ্ট সহ্য করতে। আমরা বিভিন্ন সময়ে সরকারের পক্ষ থেকে যৌতুক, মাদক, সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে তথা জনকল্যাণকর বিষয়ে গণসচেতনতামূলক অনুষ্ঠানে আমাদের ডেকোরেটর ও কমিউনিটি সেন্টার বিনা ভাড়ায় সেবা কার্যক্রম চালিয়েছি এবং সরকারের বিভিন্ন বার্তা গণমানুষের কাছে পৌছে দিয়েছি বিভিন্ন অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে।

স্মারকলিপিতে ৩ দফা দাবীর মধ্যে রয়েছে সরকারের সকল স্বাস্থ্যবিধি মেনে শীঘ্যই আমাদের ডেকোরেটর ও কমিউনিটি সেন্টার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানসমূহ পরিচালনা করার অনুমতি প্রদান, প্রধানমন্ত্রী’র পক্ষ থেকে ঘোষিত প্রণোদনা প্রদান এবং ডেকোরেটর ও কমিউনিটি সেন্টারের সাথে সম্পৃক্ত কারিগর, বাবুর্চি ও পরিবেশনকারীসহ সকল কর্মচারিদের আর্থিক অনুদান প্রদান।