দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে শাশুড়ীকে গলাটিপে হত্যার অভিযোগ

0
1

 

চৌধুরী নুপুর নাহার তাজ, দিনাজপুর জেলা প্রতিনিধিঃ

দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে পুত্রবধূ কতৃক শ্বাশুরীকে গলা টিপে ধাক্কা দিয়ে ফেলে হত্যা করার অভিযোগে থানা পুলিশ মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেছে।

ঘটনাটি ৪ জুন বৃহস্পতিবার সকাল আনুমানিক ৭ ঘটিকায় উপজেলার আউলিয়াপুকুর ইউনিয়নের বড়গ্রাম বোর্ডপাড়ায় ঘটেছে।

ঘটনাস্থলে সরেজমিনে গেলে প্রতিবেশি কয়েকজন জানান, ওই গ্রামের মৃত ফয়েজ উদ্দিনের বিধবা স্ত্রী শাহেদা বেগম (৮০) এর সাথে তার বড় ছেলের স্ত্রী পুত্রবধু মোছাঃ বানু আক্তারের প্রায়ই ঝগড়াঝাটি হত। ঘটনার দিন সকাল ৬ টা হতে ওই পুত্রবধু ও শ্বাশুরীর প্রচন্ড ঝগড়া হয়। এক পর্যায়ে পুত্রবধু শ্বাশুরী গলা টিপে ধরে সজোরে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়। এসময় শ্বাশুরী দম বন্ধ হয়ে মৃতুবরণ করেন।

ঘটনাটি জানাজানি হলে পুত্রবধু বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়। পরিবারের অন্যান্য লোকেরা ঘটনাটিকে আড়াল করতে তড়িঘড়ি করে মরদেহকে গোসল করিয়ে দাফনের জন্য পারিবারিক কবরস্থানে নিয়ে জানাযা শেষে দাফনের চেষ্টা করে।

চিরিরবন্দর থানার অফিসার ইনচার্জ সুব্রত কুমার সরকার জানান, সংবাদ পেয়ে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানকে সাথে নিয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে পুলিশ সুপার মহোদয়ের সঙ্গে পরামর্শ ও নির্দেশ মোতাবেক জানাযা শেষে দাফনের পূর্ব মুহুর্তে কবরস্থান হতে মরদেহ উদ্ধার করে সুরতহাল পূর্বক ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে প্রেরণ করি। এ ব্যাপারে একটি ইউডি মামলা করা হয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলে সে মোতাবেক ব্যবস্থা নেয়া হবে।
ঘটনাটি এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে।

  • 28
    Shares