তালায় ১ সন্তানের জননী ১৮ বছরের যুবকের হাত ধরে উধাও,থানায় জি,ডি

0
0

এন,ইসলাম ( সাতক্ষীরা-তালা)ঃ

সাতক্ষীরার তালা উপজেলার কানাইদিয়া গ্রামের কোমল দাশের স্ত্রী ১ সন্তানের জননী টুম্পা রানী দাশ (২৫) একই গ্রামের রাম প্রসাদ দাশ (১৮) নামক এক যুবকের সাথে দীর্ঘ দিনের পরকীয় প্রেমের সম্পর্কের জের ধরে অজানায় পাড়ি জমানোর খবর পাওয়া গেছে। এ বিষয়ে টুম্পা রানীর স্বামী কোমল দাশ স্ত্রীর সন্ধান না পেয়ে তালা থানায় সাধারন ডায়েরী করছে। অসম বয়সের প্রেমের বিষয়টি নিয়ে এলাকায় আলোচনা সমালোচনার ঝড় বইছে। পরকীয়া প্রেমের জের ধরে ঘর ছাড়া টুম্পা রানী দাশের স্বামী কোমল দাশ জানান গত ১৩ মে’২০ তারিখে আমার স্ত্রী টুম্পা রানী দাশ আনুমানিক সকাল ১০ টায় কপিলমুনিতে ডাক্তার দেখানোর কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয়। পরবর্তীতে বাড়িতে না ফেরায় আমি ও আমার পরিবারের লোক জন আমার শ্বশুর বাড়ি সহ বিভিন্ন স্থানে খোঁজা খুঁজি করে তার কোন সন্ধান না পেয়ে স্ত্রীর কাছে থাকা মোবাঃ নং যোগাযোগ করলে আমার স্ত্রীর প্রেমিকা একই গ্রামের পাড়া প্রতিবেশী কবি লালের পুত্র রাম প্রসাদ জানায় টুম্পা রানী এখন আমার স্ত্রী সে আমার সাথে রয়েছে। বিষয়টি নিয়ে বাড়া বাড়ি না করার জন্য হুমকি প্রদান করে।এলাকাবাসী ও পাড়া প্রতিবেশীরা জানান আনুমানিক তের বছর পূর্বে কানাইদিয়া গ্রামের মনোরঞ্জন দাশ ওরফে মন্টু দাশের কন্যা টুম্পা রানী দাশের সহিত একই গ্রামের প্রতিবেশী সন্তোষ দাশের পুত্র কোমল দাশের সহিত সনাতন ধর্মানুসারে বিয়ে হয়। তাদের সংসারে রয়েছে ৫ বছরের একটা পুত্র সন্তান। এই পুত্র সন্তান কে রেখে পরকীয়া প্রেমের জের ধরে ডাক্তার দেখানোর কথা বলে ১ সন্তানের জননী টুম্পা রানী একই গ্রামের কবিলাল দাশের পুত্র রাম প্রসাদ নামক এক যুবকের সাথে আজ ১৮ দিন পালিয়ে গেছে। কোমল দাশ জানান মেয়ের বাবা মিথ্যা মামলার হুমকি প্রদান করায় ১৮ মে’২০ তারিখে আমি তাদের নামে তালা থানায় সাধারন ডায়েরী করছি। নিরীহ কোমল দাশ এ বিষয়ে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।স্থানীয় ইউ,পি সদস্য ও আওয়ামী লীগ নেতা কালিদাশ অধিকারি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন আমি বিষয়টি মিমাংসার জন্য উভয় পরিবারের সাথে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছি আশা রাখি মিমাংসা করতে পারবো।