ইউনাইটেড হাসপাতালে অগ্নিকান্ডে নিহত লিটনের পরিবারের সদস্যদের শান্তনা দিতে ছুটে যান- এমপি মনোরঞ্জন শীল গোপাল

0
1
আব্দুল জলিল, নিজস্ব প্রতিবেদক ॥- রাজধানীর গুলশানের বেসরকারি ‘ইউনাইটেড হাসপাতাল’ এর আইসোলেশন ইউনিটে অগ্নিকান্ডে নিহত রিয়াজুল আলম লিটনের (৫০) মরদেহ দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলার পৌর শহরের ৭ নং ওয়ার্ডের সুজালপুর গ্রামের নিজ বাড়ীতে নিয়ে আসা হয়েছে।
এ খবর পেয়ে ২৮ মে ২০২০ বৃহস্পতিবার দুপুরে ওই বাড়ীতে যান দিনাজপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য মনোরঞ্জন শীল গোপাল। এ সময় তিনি শোক সন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের শান্তনা দেন ও ধৈর্য্য ধারনের অনুরোধ জানান। সেই সাথে ঢাকা থেকে আসা ও পরিবারের সদস্যদের কমপক্ষ্যে ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টাই মেনে চলতে পরামর্শ দেন।
পরে বাদ যোহর দুপুর ৩ টায় মাস্টারপাড়া ঈদগাহ মাঠে মরহুমের জানাজা শেষে দক্ষিণ সুজালপুর গোরস্থানে দাফন কাজ সম্পন্ন করা হয়।
নিহত রিয়াজুল আলম লিটন দিনাজপুর জেলার বীরগঞ্জ উপজেলার পৌর শহরের ৭ নং ওয়ার্ডের সুজালপুর গ্রামের মৃত ফরজান আলীর ছেলে। তিনি পেশায় বাইং ব্যবসায়ী। এছাড়ও তিনি ঢাকাস্থ্য বীরগঞ্জ সমিতির উপদেষ্টা এবং লায়ন্স অব দিনাজপুর গার্ডেনের সাবেক সেক্রেটারী ছিলেন।
৪ ভাই ১ বোনের মধ্যে ছোট রিয়াজুল আলম লিটন। পারিবারিক জীবনে তার স্ত্রী ও ৭ বছরের এক ছেলে রয়েছে।
পরিবার সূত্রে জানা যায়, রিয়াজুল আলম লিটন ইউনাইটেড হাসপাতালের পাশেই পরিবার নিয়ে বসবাস করতেন। গত বুধবার বিকাল ৩ টায় তিনি ইউনাইটেট হাসাপাতালে করোনা পরীক্ষা করার জন্য যান লিটন। অসুস্থতা বোধ করায় হাসাপাতাল কর্তৃপক্ষ তাকে রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত আইসোলেশন থাকার পরামর্শ দেন। পরে তিনি বিষয়টি ঢাকাস্থ্য বীরগঞ্জ সমিতির কর্মকর্তাদের অবহিত করেন। এরপর রাত ৯ টা ৫৫ মিনিটে সেখানে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। দ্রুত আগুন ছড়িয়ে পড়ায় তিনি তার মৃত্যু হয়। এদিকে পরে তার পরীক্ষার ফলাফলে করোনা নেগেটিভ আসে বলে জানা গেছে।
অন্যদিকে বীরগঞ্জে কালবৈশাখী ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্থ ঘর-বাড়ী পরিদর্শন করেন এবং পরিবারের লোকজনদের দ্রুত ক্ষতিগ্রস্থদের আর্থিক সহায়তা করার আশ্বাস প্রদান করেন দিনাজপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য মনোরঞ্জন শীল গোপাল।