সুস্থ থাকতে চল্লিশের পরের খাদ্য তালিকায় রাখবেন যেগুলো

0
3

দেশে দেশে ভয়াবহ তাণ্ডব চালাচ্ছে সময়ের সঙ্গে মহামারিতে রূপ নেওয়া প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস। সংকটপূর্ণ এই সময়ে নিজেকে সুস্থ রাখা অত্যন্ত চ্যালেঞ্জিং। তাই চল্লিশ পার হওয়ার পর খাদ্য তালিকায় আনুন কিছু বদল। কারণ দীর্ঘদিন সুস্থ থাকতে চাইলে এসময় একটু বুঝেই খেতে হবে আপনাকে। ডায়াবেটিস, হৃদরোগ, উচ্চ রক্তচাপসহ বিভিন্ন ধরনের রোগ থেকে দূরে থাকতে কী খাবেন, কী খাবেন না সে সম্পর্কে পরামর্শ দিয়েছেন ভারতীয় পুষ্টিবিদ ড. অমিতাভ সরকার।

* ফাইবারজাতীয় খাবার খান বেশি করে। এ ধরনের খাবার দ্রুত হজমে সহায়ক। হার্টের সমস্যা থেকে টাইপ টু ডায়াবেটিস খানিকটা হলেও রুখে দিতে পারে ফাইবার। ডাল, চিয়া সিড, তিল, ফ্ল্যাক্সসিড, ওটস, পাতাওয়ালা সবজি, আমন্ড, কাজুবাদাম ও পেস্তাবাদাম ফাইবারের অন্যতম উৎস।

* রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা জোরদার করতে রান্নায় ভেষজ ব্যবহার করুন। তুলসি, আদা, জিরা, ধনিয়া, কালোজিরা। গোলমরিচ, দারুচিনি, লবঙ্গ আপনাকে দূরে রাখতে পারে বিভিন্ন রোগ থেকে। মসলা চা বানিয়েও খেতে পারেন নিয়মিত।

* স্যাচুরেটেড ফ্যাটের বদলে হেলদি ফ্যাট খান। অলিভ অয়েল, সানফ্লাওয়ার অয়েল, ফিশ অয়েল স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী।

* কলা বা পালং শাকের মতো খাবারে পটাশিয়ামের মাত্রা বেশি ও সোডিয়ামের মাত্রা কম থাকে। এগুলোও খাদ্য তালিকায় রাখতে পারেন।

* ঝিঙে, পটল, বাঁধাকপি, লেটুস, ব্রকোলি, ফুলকপির মতো সবজি ও তরমুজ, শসা, পেয়ারা, আপেল ও নাসপাতির মতো ফল এই বয়সে খুব উপকারী।

আরও পড়ুন : মহামারির মাঝে পাকা আম খেলে মিলবে যত উপকার

* বয়স বাড়লে হাড়ের জোর কমে। তাই ক্যালশিয়াম সমৃদ্ধ ডায়েট এই সময় ভীষণ প্রয়োজন। দুধ, দই, সিরিয়াল, মাছ খান নিয়মিত। প্রোটিন ও অ্যান্টি-অক্সিডেন্টের জন্য মুরগির মাংস, ডাল, সয়া মিল্ক, লো ফ্যাট পনির খেতে পারেন।

* দুধের সঙ্গে হলুদ মিশিয়ে পান করতে পারেন।

* আর্টিফিশিয়াল সুইটনার, প্যাকেট জুস, মাফিন ও কেক, রেড মিট ও জাঙ্ক ফুড যতটা সম্ভব এড়িয়ে চলুন।

তথ্যসূত্র : এনডিটিভি

  • 2
    Shares