সৈয়দপুরের ঢেলাপীর হাটে আগুনে ৩ টি দোকানের সর্বস্ব পুরে ছাই

জেলা প্রতিনিধি নীলফামারী   

0
8

নীলফামারীর সৈয়দপুরে আগুনে তিনটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।১২ই আগস্ট  বুধবার দিবাগত গভীর রাতে শহরের উপকেণ্ঠে ঢেলাপীর হাটে ওই আগুনের ঘটনা ঘটে। আগুনে ওই বাজারে মেসার্স সাদ্দাম হার্ডওয়্যার, মেসার্স নূর ট্রেডার্স এবং বিসমিল্লাহ্ ষ্টোর নামের তিনটি  ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের  প্রায় ২৫ টাকার মালামাল সম্পূর্ণ পুড়ে ছাঁই গেছে।

 জানা গেছে, ঘটনার দিন বুধবার দিবাগত রাত আনুমানিক সাড়ে ১২টার দিকে শহরের উপকন্ঠে  ঢেলাপীর হাটের সৈয়দপুর – নীলফামারী সড়কের পাশে থাকা মেসার্স সাদ্দাম হার্ডওয়্যার, মেসার্স নূর ট্রেডার্স ও বিসমিল্লাহ্ ষ্টোর নামের বন্ধ থাকা দোকানে আকস্মিক আগুন লাগে। গভীর রাতে দোকান থেকে আগুনে ধোঁয়া বের হতে দেখে লোকজন দোকানের মালিক জালাল উদ্দিন, নবীনুর ইসলাম নূর ও আলিম সিদ্দিকীকে খবর দেয়।  সেই সঙ্গে খবর দেওয়া হয় উত্তরা ইপিজেড ও সৈয়দপুর ফায়ার সার্ভিস স্টেশনেও। খবর পেয়ে সৈয়দপুর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের স্টেশনের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর আগেই নীলফামারীর দমকলবাহনীর কর্মীরা দ্রুত সেখানে এসে  আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। কিন্তু তার আগে আগুনের লেলিহান শিখায় উল্লিখিত তিনটি দোকানের সম্পূর্ণ মালামাল পুড়ে  ছাঁই হয়ে যায়। আগুনের বিসমিল্লাহ ষ্টোরের প্রায় ৭ লাখ, মেসার্স সাদ্দাম হার্ডওয়্যারের ৮ লাখ এবং মেসার্স নূর ট্রেডার্সে  প্রায় ১০ লাখসহ  ২৫ লক্ষাধিক টাকার মালামাল পুড়ে গেছে বলে ক্ষতিগ্রস্থ দোকান মালিকদের দাবি করেন। এ আগুনের সঠিক কারণ জানা না গেলেও বৈদ্যূতিক সট সার্কিট এবং বিসমিল্লাহ ষ্টোর নামের দোকান থেকে আগুনের সূত্রপাত বলে প্রাথমিকভাবে অনুমান করা হচ্ছে।

আগুনে পুড়ে যাওয়া বিসমিল্লাহ্ ষ্টোরের স্বত্ত্বাধিকারী মো. আলিম সিদ্দিকী জানান, প্রতিদিনের মতো গত বুধবার রাতে তিনি দোকান বন্ধ করে নিজ বাড়িতে চলে যান। রাত প্রায় পৌণে ১ টার দিকে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে খবর পেয়ে তিনি  ঢেলাপীর বাজারের দোকানে ছুঁটে আসেন। এ সময় তিনি  দেখেন  তাঁর দোকানের ভেতরে আগুন দাউ দাউ করে জ্বলছে। আগুনে তাঁর দোকানের প্রায় ৭ লাখ টাকার মালামাল পুড়ে ছাঁই হয়ে গেছে বলে দাবি করে তিনি।

সৈয়দপুর ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্সের সিনিয়র স্টেশন অফিসার মো. খুরশীদ আলম জানান,  আমরা ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর আগে নীলফামারীর দমকল বাহনীর কর্মীরা সেখানে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন।

  • 11
    Shares